মেইন ম্যেনু

অস্থিরতায় ভুগছে সরকার

সরকার বিদেশিদের সঙ্গে যে আচরণ করছে তাতে তাদের সঙ্গে সম্পর্কের অবনতি হতে পারে বলে আশঙ্কা করেছে বিএনপি। সেকারণেই অস্থিরতায় ভোগছে সরকার।

শনিবার বিকেল বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে দলের ভাইস চেয়ারম্যান শমসের মবিন চৌধুরী সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ‘এ সরকার নির্বাচিত নয়, সরকারের দুর্বলতা আছে। তাই তারা অস্থিরতায় ভুগছে। আর এ কারণেই বিদেশিদের সঙ্গে বৈঠক করে ভুল ব্যাখ্যা দিচ্ছে। এতে করে সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে দেশের সম্পর্ক নষ্ট হতে পারে। এটা সরকারের অস্থিরতার বহিঃপ্রকাশ।’

তিনি বলেন, ‘বৃটিশ প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার যে বৈঠক হয়েছে তাতে দুজন স্বীকার করেছেন যে বাংলাদেশের রাজনীতিতে স্থিরতা অনুপস্থিত।’

ব্রিটিশ সরকার বাংলাদেশের ৫ জানুয়ারির নির্বাচন মেনে নিয়েছে বলে যে প্রচারণা আছে সে বিষয়ে শমসের মবিন চৌধুরী বলেন, ‘এ নিয়ে মিথ্যাচার করা হচ্ছে, বিভ্রান্তি ছড়ানো হচ্ছে।’

ব্রিটিশ সরকার ৫ জানুয়ারির নির্বাচন মেনে নেয়নি, আবার প্রধানমন্ত্রীকে সফরের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন এটি তাদের ডাবল স্টান্ড কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘দুই প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশের রাজনীতিতে স্থিতিশীলতা অনুপস্থিত বলে ঐক্যমত হয়েছে। তারা সব দলের অংশ গ্রহণে সবার কাছে গ্রহণযোগ্য করার জন্য সংলাপের কথা বলেছে। এছাড়া যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোপীয় ইউনিয়নও সংলাপের কথা বলছে।’

শমসের মবিন চৌধুরী বলেন, ‘আগে রাষ্ট্রপতি জাতিসংঘের মহাসচিব বান কি মুনের সঙ্গে বৈঠক করে মিথ্যাচার করেছেন। পরে মহাসচিবের দপ্তর থেকে বিবৃতিতে সংলাপের কথা বলা হয়েছে।’

এভাবে মিথ্যাচার করলে বিদেশিদের সঙ্গে সম্পর্ক নষ্টের আশঙ্কা আছে বলে মনে করছেন তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে বিএনপি চেয়ারপারসনের আন্তর্জাতিক বিষয়ক উপদেষ্টা কমিটির সদস্য সচিব শফিক রেহমান, দলের আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক গিয়াস কাদের চৌধুরী এবং ড. আসাদুজ্জামান রিপন উপস্থিত ছিলেন।






মন্তব্য চালু নেই