মেইন ম্যেনু

অস্ট্রিয়ান ক্লাবের হকি কোচ বাংলাদেশের বিপ্লব

২০১১ সালে আগে অস্ট্রিয়ার একটি ক্লাবে খেলতে গিয়েছিলেন মশিউর রহমান বিপ্লব। অর্ধযুগ পর সেই দেশেরই একটি ক্লাবের কোচ হয়ে যাচ্ছেন জাতীয় হকি দলের সাবেক এ ডিফেন্ডার। ২০১৪ এশিয়ান গেমসের ক্যাম্পে থাকলেও দলে ডাক না পাওয়ার পর থেকে শুধু ক্লাবেই খেলেছেন তিনি। সর্বশেষ প্রিমিয়ার লিগে খেলেছেন আবাহনীর হয়ে।

অস্ট্রিয়ার টপ লিগের ক্লাব জিমাইনশাফট মডলিংয়ে ৩ মাসের চুক্তিতে যাচ্ছেন বিপ্লব। ক্লাবটির পুরুষ দলের প্রধান কোচ দেশটির জাতীয় দলেরও কোচ। তারই অধীনে কাজ করবেন এক সময় লাল-সবুজ জার্সি গায়ে মাঠ মাতানো এ ডিফেন্ডার।

ক্লাবটির মহিলা ও অনুর্ধ্ব-১৮ দলে থাকবেন প্রধান কোচের দায়িত্বে। ৬ বছর আগে এ দেশের টপ লিগের আরেক ক্লাব পোস্ট এস ভি’র হয়ে খেলেছেন তিনি। তখন থেকেই দেশটির বিভিন্ন ক্লাবের সঙ্গে যোগাযোগ ছিল জাতীয় দলে টানা ৮ বছর খেলা এ ডিফেন্ডারের।

বিদেশে কোচিং করার অভিজ্ঞতা অবশ্য নতুন নয় বিপ্লবের। এর আগে ২০১২ ও ২০১৩ সালে জার্মানির ক্লাব ইএসভির অনুর্ধ্ব-১৪ দলের কোচিংয়ের দায়িত্বও পালন করেছেন তিনি। বাংলাদেশের অনেক খেলোয়াড়েরই আছে ইউরোপে খেলার অভিজ্ঞতা। তবে দেশের বাইরে কোচের দায়িত্ব পালন করেছেন কেবল বিপ্লবই।

২০১৪ সালের ৮ জুন বিপ্লব যোগ দিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের (বিকেএসপি) কোচ হিসেবে। অস্ট্রিয়ার ক্লাবে কোচ হয়ে যাওয়ার আগে তিনি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন বিকেএসপির মহাপরিচালক, পরিচালক এবং হকি বিভাগের কর্মকর্তাদের প্রতি, ‘আমি তাদের কাছে কৃতজ্ঞ। তারা এতবড় সুযোগ করে দেয়ায় আমি অনেক কিছু শিখতে পারবো। যা আমার ক্যারিয়ারে কাজে লাগবে’- জাগো নিউজকে বলেছেন বিপ্লব।

সব কিছু ঠিক থাকলে ১০ মার্চ অস্ট্রিয়ার উদ্দেশ্যে ঢাকা ত্যাগ করবেন ২০১০ সালে ঢাকা এসএ গেমস ও এশিয়ান গেমস বাছাই পর্বে জাতীয় দলের অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করা এ ডিফেন্ডার।






মন্তব্য চালু নেই