মেইন ম্যেনু

অন্ধকার থেকে যেভাবে আলোর জগতে এলেন যৌনকর্মী

আধুনিক বিশ্বে মুসলমানদের যখন জঙ্গি গোষ্ঠীর সাথে তুলনা করার অপচেষ্টা চালানো হচ্ছে ঠিক তখনই ফেলিক্সিয়া ইয়েপ নামের মালয়েশিয়ার এক যৌনকর্মী আল কোরআনের প্রেমে পড়ে ইসলাম গ্রহণ করে মুসলমান হয়েছেন।

গত বৃহস্পতিবার ইসলাম গ্রহণ করে তিনি বলেছেন, এর মাধ্যমে আমার পুনর্জন্ম হয়েছে। ইসলাম গ্রহণের পুরো ঘটনাটি জানাতে গিয়ে তিনি বলেন, আমি প্রায় দুই বছর ধরে প্রতি রোববার ক্যাথলিক চার্চে গিয়েছি।

এছাড়াও কুয়ান ইন ও অন্যদের উপাসনা করার মাধ্যমে নতুন অর্থ খুঁজে পাওয়ার চেষ্টা করেছি। বৌদ্ধদের ধর্মীয় আচার পালনেরও চেষ্টা করি। কিন্তু পবিত্র কোরআন পড়ার পর আমার হৃদয়ে অন্যরকম একটা অনুভূতির স্পর্শ অনুভব করতে পেরেছিলাম। অন্য ধর্ম কখনও আমার হৃদয় এতটা স্পর্শ করে যায়নি। ইসলাম গ্রহণের আগে ইসলাম সম্পর্কে জানতে ৭ মাস ব্যয় করেছেন তিনি। নতুন এই সফরে ফেলিক্সিয়া যেন অবিচল ও অঙ্গীকারবদ্ধ থাকতে পারেন সে জন্য সকলের দোয়া প্রার্থনা করেছেন।

একই সঙ্গে তিনি এ-ও বলেছেন, নতুন জীবনের জন্য যারা প্রার্থনা করেছেন শুধু আল্লাহই তাদের প্রতিদান দিতে পারবেন। ফেসবুকে দেয়া ফেলিক্সিয়ার ওই বিবৃতিতে ৮ লাখ ৫০ হাজার অনুসারীর মধ্যে সাড়ে সাত লাখ লাইক দিয়েছেন। বৃহস্পতিবার ইসলাম গ্রহণের জন্য বেছে নেয়ার কারণ হলো সেদিন ছিল ফেলিক্সিয়ার ২৮তম জন্মদিন। এ বছরের শুরুর দিকে তিনি খোলামেলা ছবিতে পোজ দেয়া বন্ধ করে দেন। এরপর থেকে ঐতিহ্যবাহী মুসলিম পোশাকে মডেলিং করে আসছেন ফেলিক্সিয়া।






মন্তব্য চালু নেই