মেইন ম্যেনু

অজানা আতঙ্কে গ্রেপ্তার

বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, সরকার ভয় ও অজানা আতঙ্ক থেকে গণহারে বিএনপির নেতা কর্মীদেরকে গ্রেপ্তার করছে।

শনিবার সন্ধ্যায় নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে রুহুল কবীর রিজভী এ অভিযোগ করেন।

তিনি বলেন, ‘আলাল দলের যুব বিষয়ক সম্পাদক এবং সাবেক সংসদ সদস্য। তার বাসায় নেতাকর্মীরা আসতেই পারে। কিন্তু সরকার সবসময় আতঙ্কের মধ্যে আছে, তাই বিরোধী দলকে দমনের জন্য গ্রেপ্তার হত্যা, গুম, খুন নির্যাতনের পথ বেছে নিয়েছে।’

সরকারকে হুঁশিয়ারি দিয়ে বিএনপির এ নেতা বলেন, ‘অবৈধ সরকার এইসব অপতৎপরতা বন্ধ না করলে জনগণের সব শক্তি দিয়ে তাদেরকে টেনে নামানো হবে।’ এসময় রিজভী অবিলম্বে মোয়াজ্জেম হোসেন আলালসহ আটক ৮০ জন নেতাকর্মীর মুক্তি দিতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানান।

সংবাদ সম্মেলনে এসময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- বিএনপির অর্থনীতি বিষয়ক সম্পাদক আবদুস সালাম, মহানগর বিএনপির সদস্য সচিব হাবিব উন নবী খান সোহেল, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক মাসুদ তালুকদার, গণশিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক সানাউল্লা মিয়া, মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদিকা শিরীন সুলতানা প্রমুখ।

উল্লেখ, শনিবার বেলা পৌনে ১১টার দিকে মোহাম্মদপুরে নিজ বাসা থেকে যুবদলের কেন্দ্রীয় সভাপতি সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলালসহ অন্তত ৮০ জন নেতাকর্মীকে মোহাম্মদপুর থানা পুলিশ আটক করে।

আটকের বিষয়ে মোহাম্মদপুর থানার সেকেন্ড অফিসার আমিনুল ইসলাম বাংলামেইলকে বলেছিলেন, ‘আগামীকালের হরতালকে কেন্দ্র করে আমাদের আটক অভিযান চলছে। তবে কারো নাম বা সংখ্যা এখন জানানো যাবে না। অভিযান শেষ হলে বিস্তারিত জানানো হবে।’






মন্তব্য চালু নেই