মেইন ম্যেনু

বাঁহাতিদের নিয়ে বিস্ময়কর কিছু তথ্য

কাজের ক্ষেত্রে আপনি ডান হাত না বাম হাত ব্যবহার করছেন তাতে আসলে কিছু যায় আসে না। বিখ্যাত অনেক ব্যক্তি যেমন আলবার্ট আইনস্টাইন, বেনজামিন ফ্রাংকলিন, অ্যালেকজান্ডার ছিলেন বাঁহাতি। তবু বাম হাতের ব্যবহার আমর আলদাভাবে লক্ষ্য করি, কারণ বাঁহাতিরা সংখ্যালঘু। পৃথিবীতে মোট জনসংখ্যার ১০-১২ ভাগ হয় বাঁ-হাতি। আসুন জেনে নিই হাতের এই ব্যবহার তাঁদের জীবনে কিছু পরিবর্তন আনে কিনা!
১। গবেষণায় দেখা গেছে বাঁহাতিরা বেশি মানসিক অসুস্থ্যতায় ভোগেন। তাদের মধ্যে মাদকাসক্তি, সিজোফ্রেনিয়া ইত্যাদির প্রবণতা বেশি থাকে।
২। একজন ৪০ বর্ষীয় মা বাঁহাতি শিশু পেয়ে খুব খুশী হন, যেখানে ২০ বর্ষীয় মায়েরা তাঁদের সন্তানদের ডান হাত ব্যবহার করাকেই বেশি পছন্দ করেন।
৩। ইতিহাস বলে, বাম হাত ব্যবহারকারীদের মধ্যে অপরাধ প্রবণতা, বিদ্রোহ করার মানসিকতা বেশি থাকে।
৪। ইংরেজী লেফট শব্দটি এংলো সেক্সন ভাষার লিফট শব্দ থেকে এসেছে যার অর্থ দূর্বল বা ভাংগা।
৫। বোস্টন স্ট্রাংলার, জ্যাক দ্যা রিপার, ওসামা বিন লাদেন বাঁহাতি ছিলেন।
৬। ৫০ শতাংশ বিড়াল এবং ইদুরেরা তাদের সামনের বাম পায়ে সব কাজ করতে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করে।
৭। LRRTM1 নামক জীনটি বাঁহাতিদের শরীরে বেশি স্বক্রিয় থাকে।
৮। মস্তিষ্কের ডান এবং বাম অংশের যোগাযোগ বাঁহাতিদের ক্ষেত্রে তুলনামূলক দ্রুত হয়। অর্থাৎ এরা একাধিক উদ্দীপনায় দ্রুত সাড়া দিতে পারেন।
৯। বাঁহাতিরা যখন কোন মানুষ আঁকেন তখন দেখা যায় মানুষগুলো ডানদিকে মুখ করে আছে!
১০। বিশ্বের অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বাঁহাতিদের আলাদাভাবে স্কলারশিপের ব্যবস্থা আছে।
১১। বিয়ের আংটি নিয়ে ১ টি প্রবাদ প্রচলিত আছে। মিশরীয়দের মতে বাঁহাতে বিয়ের আংটি পরলে প্রেমিক জুটি আরো কাছে আসেন।
১২। জরিপে দেখা যায় বাঁহাতিরা পড়াশোনার জন্য সময় বেশী পান ডানহাতিদের তুলনায়।
১৩। বাঁহাতিরা ডান হাত ব্যবহারকারীদের তুলনায় গড়ে ৯ বছর আগে মৃত্যুবরণ করেন।






মন্তব্য চালু নেই