মেইন ম্যেনু

৯ বছরেই সুপার মডেল সঙ্গে ‘সেক্সি’ তকমা!

নিজের শিশু বয়সটা এখনও পার করতে পারেননি রাশিয়ান সুপার মডেল ক্রিস্টিনা পিমেনোভা। টিনএজ বয়স থেকেও রয়েছেন অনেক দূরে। তার পরেও পেয়েছেন সেক্সি তকমা!

নীল চোখ, সোনালী চুল এবং অসাধারণ সুন্দর হাসি। সুন্দরী বলতে আসলে যা বোঝায়। সৌন্দর্যের আশীর্বাদ নিয়েই যেন জন্মেছেন ক্রিস্টিনা। বয়স এখন মাত্র নয় বছর। তিন বছর বয়সে মডেলিংয়ের জগতে পা রেখেছিলেন তিনি। এরই মধ্যে রাশিয়ার অন্যতম জনপ্রিয় সুপারমডেল। বিশ্বের মধ্যে সবথেকে কম বয়সে সুপারমডেল-এর তকমা পাওয়া ক্রিস্টিনার ফেসবুক জনপ্রিয়তাও কম নয়। ফলোয়ার্সের সংখ্যাও শুনে চমকে উঠতে পারেন আপনি। সংখ্যাটা ২,৬০৮,৮৬০ জন। অবশ্য নিজে নয় ফেসবুক অ্যাকাউন্টটি চালান ক্রিস্টিনার মা। তিনিও একজন প্রাক্তন মডেল।

মূলত মায়ের অণুপ্রেরণাতেই র‌্যাম্পে হাঁটা শুরু করেছিলেন ক্রিস্টিনা। তিন বছর বয়সেই বিশ্বের সেরা ব্র্যান্ডগুলোর নজরে পড়ে যান তিনি। ব্র্যান্ডগুলোর তালিকায় রয়েছে রবের্তো কাভালি, আরমানি, ডলচে অ্যান্ড গাবানা, বেনেটনের নাম। শুধু মডেলিং নয়, জিমন্যাস্টিকও ভীষণ প্রিয় ক্রিস্টিনার। আর বেশ দক্ষতার সঙ্গেই জিমন্যাস্টিক্স করেন তিনি। সাত বছর বয়সেই ফ্যাশন ম্যাগাজিন ভোগ এর প্রচ্ছদে জায়গা করে নিয়েছিল তার ছবি। কিন্তু এখন সেই ভোগ পত্রিকাই ক্রিস্টিনাকে নিয়ে সমালোচনায় মেতেছে। তাদের দাবি, মাত্র ৯ বছর বয়সে কোনও শিশুকে এভাবে খোলামেলা পোশাকে পুরুষদের বিজ্ঞাপনে ব্যবহার করা উচিৎ নয়। এতে নষ্ট হচ্ছে তার শৈশব।

অন্যদিকে ফেসবুকে এই বয়সেই ক্রিস্টিনাকে অশ্লীলভাবে উপস্থাপন করায় অনেকেই এ সুপার মডেলের মায়ের সমালোচনাও করছেন।






মন্তব্য চালু নেই