মেইন ম্যেনু

২৭ ফেব্রুয়ারি আদালতে না গেলে খালেদার জামিন বাতিল

রাজধানীর যাত্রাবাড়ী থানায় দায়ের করা হত্যা মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে আগামী ২৭ ফেব্রুয়ারি আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। এ দিন আদালতে না এলে তার জামিন বাতিল করা হবে জানিয়েছেন মহানগর হাকিম কামরুল হোসেন মোল্লা।

খালেদা জিয়ার আইনজীবী জয়নুল আবেদিন মেজবাহ জানান, বুধবার এ মামলাটি আমলে নেওয়ার জন্য দিন ধার্য ছিল। খালেদা জিয়া অসুস্থ থাকায় সময়ের আবেদন করা হয়। আদালত তা মঞ্জুর করে।

তিনি বলেন, আগামী ২৭ তারিখে মামলাটি আমলে নেওয়া হবে। ওই দিন খালেদা জিয়া না আসলে তার জামিন বাতিল করা হবে বলে জানিয়েছেন আদালত।

এদিন খালেদার বিরুদ্ধে আরো ১০ মামলার শুনানি হবে বলে জানান তিনি।

২০১৫ সালের ২৩ জানুয়ারি রাতে যাত্রাবাড়ীর কাঠেরপুল এলাকায় গ্লোরি পরিবহনের যাত্রীবাহী একটি বাসে পেট্রলবোমা ছোড়া হয়। এতে বাসের ২৯ যাত্রী দগ্ধ হন। পরে তাদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে ১ ফেব্রুয়ারি চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান নূর আলম (৬০) নামের এক যাত্রী।

ওই ঘটনায় ২৪ জানুয়ারি বিকেলে খালেদা জিয়াকে হুকুমের আসামি করে যাত্রাবাড়ী থানায় মামলা করেন থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) কেএম নুরুজ্জামান।

২০১৫ সালের ৩ এপ্রিল মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) উপ-পরিদর্শক (এসআই) বশির উদ্দিন বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াসহ ৩৮ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। মামলায় সাক্ষী করা হয় ৮১ জনকে।

মামলার উল্লেখযোগ্য আসামিরা হলেন বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া, স্থায়ী কমিটির সদস্য এমকে আনোয়ার, সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, যুগ্ম-মহাসচিব হাবিব-উন-নবী খান সোহেল, সাবেক যুগ্ম-মহাসচিব আমানউল্লাহ আমান, বরকত উল্লাহ বুলু, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা খন্দকার মাহবুব হোসেন, শওকত মাহমুদ, বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস সচিব মারুফ কামাল খান সোহেল, চেয়ারপারসনের বিশেষ সহকারী শামসুর রহমান শিমুল বিশ্বাস।






মন্তব্য চালু নেই