মেইন ম্যেনু

২০১৯ সালের পরও আওয়ামীলীগ ক্ষমতায় থাকবে : সাবেক পৌর মেয়র লিটন

আওয়ামীলীগ তার দীর্ঘ ইতিহাসের ধারাবাহিকতায় বজায় রেখে তৃনমুলের নেতাকর্মীদের সংগঠিত করার মাধ্যমেই এই দলকে আরও শক্তিশালী ভীত রচনার কাজ করে যাচ্ছে।২০১৯ সালে তো নির্বাচন হবে বটেই,আমি বিশ্বাস করি আ’লীগ এর পরেও রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় থেকে দেশ ও জাতীয় কল্যানে নিরলস ভাবে কাজ করে যাবে।গতকাল শনিবার নওগাঁ পৌর আ’লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে পৌর আ’লীগের কেন্দ্রিয় কমিটির সভাপতি দেওয়ান ছেকার আহমেদ শিষানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় রাজশাহী মহানগর আ’লীগের সভাপতি এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন এসব কথা বলেন।অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আ’লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সুরন্জিত
রায়,রাজশাহী মহানগর আ’লীগের সাধারন সম্পাদক ডাবলু,জেলা আ’লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের প্রশাসক এ্যাডঃ ফজলে রাব্বী,সংসদ হুইপ শহিদুজ্জামান,এমপি আব্দুল মালেক ও এমপি সাধন মজুমদার,জননেতা মরহুম জলিলের পুত্র নিজাম উদ্দীন জলিল প্রমুখ।সম্মেলনের শেষ পর্যায়ে ছেকার শিষানকে সভাপতি ও মোঃ আলীকে সাধারন সম্পাদক করে ৬৭ সদস্যবিশিষ্ট পৌর আওয়ামীলীগের কমিটি ঘোষনা করা হয়।

 

নওগাঁয় পাঁচ হাজার মুক্তিযোদ্ধার মিলন মেলা    
নওগাঁর আত্রাই উপজেলা সদরে মুক্তিযোদ্ধাদের মিলন মেলা ও স্মৃতিচারন মেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে।গতকাল শনিবার দুপুরে উপজেলার সাহেবগন্জ্ঞ ফুটবল মাঠে নওগাঁ জেলা মুক্তিযোদ্ধা ইউনিটের কমান্ডার হারুন-অল-রশীদের সভাপতিত্বে ও আত্রাই রানীনগরে সংসদ সদস্য ইসরাফিল আলমের সার্বিক ব্যবস্থাপনায় অনুষ্ঠিত মুক্তিযোদ্ধাদের মিলন মেলা ও স্মৃতিচারন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের হুইপ আলহাজ্ব শহিদুজ্জামান সরকার।এ মিলন মেলায় বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন সংসদ সদস্য সাধন মজুমদার,সংসদ সদস্য ইসরাফিল আলম,সংসদ সদস্য ছলিম উদ্দীন তরফদার।সাবেক সংসদ সদস্য সদস্য বীরমুক্তিযোদ্ধা ও অনুষ্ঠানের প্রধান সমন্বয়কারী ওহিদুর রহমানসহ বগুড়া নাটোর রাজশাহী জেলার মুক্তিযোদ্ধারা এই
মিলন মেলায় স্মৃতিচারন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।উল্লেখ্য যে বিভিন্ন জেলা থেকে প্রায় পাঁচ হাজার মুক্তিযোদ্ধা এ অনুষ্ঠানে অংশগ্রহন করেন এবং তারা যুদ্ধপারাধীদের বিচারের রায় দ্রুত কার্যকর করতে স্লোগান করেন।






মন্তব্য চালু নেই