মেইন ম্যেনু

১৯শ টাকায় সংসার চলে?

গ্রামীণ সমাজ, অর্থনীতি ও অবকাঠামোর যথেষ্ট উন্নয়ন হলেও গ্রাম পুলিশদের ভাগ্যের কোনো উন্নয়ন হয়নি। একজন গ্রাম পুলিশের বেতন সর্বোচ্চ ২১শ টাকা। এ টাকায় তারা পরিবার পরিজন নিয়ে জীবন নির্বাহ করতে পারছে না। সন্তানকে ন্যূনতম শিক্ষার সুযোগ দেয়ার সামর্থ্য তারা অর্জন করতে পারছে না।

এই বৈষম্যের প্রতিবাদে মঙ্গলবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন করেছে বাংলাদেশ গ্রাম পুলিশ কর্মচারী ইউনিয়ন। গ্রামীণ সমাজ ও অর্থনৈতিক অবকাঠামোর উন্নয়নের স্বার্থে ৪৬ হাজার গ্রামপুলিশ কর্মচারীদের চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারীর সমস্কেলের বেতনের দাবি করেন তারা।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, এ সরকার শ্রমিক, কৃষকসহ শ্রমজীবী মানুষের জীবন ও জীবিকার মান উন্নয়নে করছে, দেশের ২৬ হাজার স্কুল ও স্কুলের শিক্ষকদের চাকরি জাতীয়করণ এমনকি সরকারি ও বেসরকারি অফিসের একজন পিয়নের বেতন ১৫ হাজার টাকা নির্ধারণ করেছে। অথচ একজন গ্রাম পুলিশের বেতন মাত্র ১৯০০ টাকা থেকে ২১০০ টাকা।

২১শ’ টাকা দিয়ে কীভাবে একটি পরিবার চলতে পারে? সরকারে কাছে এমন প্রশ্ন রেখে বক্তারা বলেন, আমাদের বেঁচে থাকার জন্য ৪র্থ শ্রেণীর কর্মচারীর সমস্কেলের বেতন এবং গ্রাম পুলিশ বাহিনীকে বাহিনী হিসেবে উন্নীত করার জন্য প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করার পাশাপাশি আনসার ভিডিপির মতো রেশনিং ব্যবস্থার জোর দাবি জানাই।

সংগঠনের চেয়ারম্যান মোস্তফা কামালের সভাপতিত্বে মানবন্ধনে আরও উপস্থিত ছিলেন- মহাসচিব এমএ আলিম, বাংলাদেশ সংযুক্ত শ্রমিক ফেডারেশনের সভাপতি মোসাদ্দেক হোসেন স্বপন প্রমূখ।






মন্তব্য চালু নেই