মেইন ম্যেনু

হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার আশা দিয়ে আহত ব্যক্তিকে নিয়ে কোথায় গেলেন নিষ্ঠুর চালক?

গতকাল রাত সাড়ে দশটা নাগাদ টালিগঞ্জ সার্কুলার রোডে একটি মিনিডোর এক স্থানীয় বাসিন্দাকে ধাক্কা মারে। এর ফলে গুরুতর ভাবে আহত হন তিনি। এই দুর্ঘটনাটি ঘটার সঙ্গে সঙ্গেই এলাকার লোকজন ধরে ফেলে গাড়িটিকে। ধরা পড়ার পরে ড্রাইভার বলে যে সে ওই আহত ব্যক্তিকে নিকটবর্তী বাঙ্গুর হাসপাতালে পৌঁছে দেবে। ড্রাইভার তাঁকে নিয়ে চলে গেলে এলাকার লোকজন আহতের বাড়িতে খবর দেয় এবং পুলিশকেও গোটা ঘটনাটি জানানো হয়।

বছর পঁয়তাল্লিশের ওই ব্যক্তির নাম শেখ সেলিম। তাঁর বাড়ির লোকজন এর পর বাঙ্গুর হাসপাতালে গিয়ে দেখেন যে সেখানে ওই নামে কাউকে ভর্তি করা হয়নি। এর পর পুলিশ ও শেখ সেলিমের পরিবারের লোকজন বিভিন্ন হাসপাতালে তাঁকে খুঁজতে থাকেন কিন্তু কোথাও তাঁকে পাওয়া যায় না। শেষমেশ শেখ সেলিমের খোঁজ পাওয়া যায় আজ ভোরে আনোয়ার শাহ রোডে। তখন তিনি মৃত।
জানা যায় যে প্রতিশ্রুতি দিয়েও মিনিডোরের ড্রাইভার শেখ সেলিমকে পৌঁছে দেয়নি হাসপাতালে। পরিবর্তে তাকে আহত অবস্থায় ফেলে রেখে চলে যায় রাস্তায়। সারারাত ওইখানেই পড়েছিলেন শেখ সেলিম। চিকিৎসার অভাবে শেষ পর্যন্ত প্রাণ হারান তিনি। যখন পরিবারের লোকজন তাঁর সন্ধান পান, তখন তিনি মৃত।






মন্তব্য চালু নেই