মেইন ম্যেনু

হাজীগঞ্জে একুশে বই মেলার সমাপ্তি

সুজন দাস : প্রথমবারের মতো পাঁচদিন ব্যাপী আয়োজিত চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে একুশে বই মেলা ও মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের সমাপ্তি হয়েছে। হাজীগঞ্জ সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক পরিষদের সভাপতি মাহবুবুল আলম চুন্নু ও সাধারণ সম্পাদক গাজী মো. সালাহউদ্দিনের পরামর্শে একুশে বই মেলা উদযাপন কমিটির আহবায়ক মাসুদ ইকবাল ও সদস্য সচিব মনিরুজ্জামান বাবলু’র সার্বিক তত্ত্বাবধানে মেলাটি সম্পন্ন হয়। পাঁচদিন ব্যাপী বই মেলা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্টানের পরিচালনা করেন পরিষদের অর্থ সম্পাদক মোহাম্মদ কামাল হোসাইন ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক এসএম মিরাজ মুন্সী।

মেলার শেষ দিন দুপুরে বই মেলা পরিদর্শন করেন বিদ্যুৎ ও জ্বালানী মন্ত্রণালয়ের পাওয়ার সেল বিভাগের মহা পরিচালক প্রকৌশলী মোহাম্মদ হোসাইন।

মাগরিবের নামাযের পর পাঁচ দিনের আয়োজিত সেরা নৃত্য শিল্পিদের মনোজ্ঞ নৃত্যানুষ্ঠান। আলোচনা সভার প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন হাজীগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আ.স.ম. মাহবুব-উল-আলম লিপন, বিশেষ অতিথি হাজীগঞ্জ বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি আহসান হাবীব অরুন ও সাধারণ সম্পাদক হায়দার পারভেজ সূজন বক্তব্য রাখেন। হাজীগঞ্জ সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক পরিষদের সভাপতি মাহবুব আলম চুন্নু’র সভাপতিত্ব শেষ দিনের অনুষ্ঠানে পাঁচদিনে সেরা তিন প্রতিষ্ঠান সূচিপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়, হাজীগঞ্জ মডেল বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ও সিলভার বেল স্কুল, দি মোহাম্মদীয় টিম্বার এন্ড ইকরা ডোরের সৌজনে সেরা দশ নৃত্য শিল্পি, মাতৃভূমি স্টলের প্রোপাইটর মেহেদী হাছান রাব্বীর সৌজন্যে প্রশ্ন-উত্তর পর্বে ৮ জন দর্শককে বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী বই উপহার দেয়া হয়।

এছাড়া ২০১৬ সালে ‘অনুসন্ধান সাংবাদিকতা’য় তিন সাংবাদিককে সম্মাননা স্মারক প্রদান করেন প্রধান অতিথি হাজীগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আ.স.ম মাহবুব-উল-আলম লিপন ও সনদ প্রদান করেন দৈনিক চাঁদপুর কন্ঠের প্রধান সম্পাদক কাজী শাহাদাত। প্রথম স্থান অর্জন করেন সাংবাদিক মনিরুজ্জামান বাবলু, দ্বিতীয় স্থান অর্জন করেন সাংবাদিক খালেকুজ্জামান শামীম ও তৃতীয় স্থান অর্জন করেন সাংবাদিক গাজী মহিন উদ্দিন।

রাত ৯ টায়- র‌্যাফেল ড্র অনুষ্ঠিত হয়। পরিচালনা করেন র‌্যফেল ড্র উপ-কমিটির আহবায়ক সানা উল্ল্যাহ পাটওয়ারী। প্রথম পুরষ্কার পেয়েছেন ৫৫৬ নম্বর। হাজীগঞ্জ সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক পরিষদের সভাপতি মাহবুব আলম চুন্নু প্রথম পুরষ্কার প্রাপ্ত হাজীগঞ্জ বাজার ব্যবসায়ী সমিতি ১ নং ওয়ার্ড কমিশনার আবু নোমান রিয়াদকে ১৭ ইঞ্চি এলইডি টিভি হাতে তুলে দিয়ে পাঁচদিন ব্যাপী বই মেলার সমাপ্তি ঘোষণা করেন।






মন্তব্য চালু নেই