মেইন ম্যেনু

স্ত্রীকে চলন্ত অটোরিকশায় গলা কেটে হত্যা

চলন্ত অটোরিকশায় গলা কেটে ও বুকে ছুরিকাঘাত করে স্ত্রীকে হত্যা করেছে স্বামী। ভারতের মুম্বাইয়ের গোরাগাঁও থানার টমেটো লেনে গত মঙ্গলবার ভোরে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় প্রথমে কোনো কিনারা না পাওয়া গেলেও পলাতক স্বামী প্রসাদ রাওয়াতকে (৩০) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গোরাগাঁও থানার ডিসিপি বিক্রম দেশমানে বলেছেন, দাম্পত্য কলহের জেরে দুই সন্তানের মা গীতা দুবেকে (২৮) হত্যা করা হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে পুলিশ।

গীতার দেবর সান্তোষ উপাধ্যায় বলেন, গীতার এক ও তিন বছরের দুটি কন্যা রয়েছে। তারা আলাদা থাকতেন। তবে প্রসাদ মাঝেমধ্যে মালাদের শ্বশুর বাড়িতে গিয়ে স্ত্রীর সঙ্গে থাকতেন।

পুলিশ জানায়, সোমবার রাতে একটি অটো রিকশায় চড়ে গীতা তার মায়ের বাড়ি পশ্চিম মালাদে যাচ্ছিলেন। রাত সোয়া ৯টায় অটোরিকশাটি গোরাগাঁওয় রেল স্টেশনের কাছে টমেটো লেনে পৌঁছলে খুনি ঝাপিয়ে পড়ে।

সে গীতাকে উপর্যুপরি ছুরিকাঘাত করে হত্যা করে। প্রথমে গীতার গলা কেটে ফেলে। পরে তার বুকে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায়। গুরুতর অবস্থায় গীতাকে পশ্চিম গোরগাঁওয়ের সিদ্ধার্থ হাসপাতালে নিয়ে যান অটোচালক। কিন্তু অতিরিক্ত রক্তক্ষরণের কারণে তাকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসক।

ঘটনার খবর জানার পর পুলিশ সিসিটিভির ফুটেজ দেখে এবং নিহত গীতার স্বজনদের জিজ্ঞাসাবাদ করে। কিন্তু তার স্বামী রাওয়াত পলাতক ছিলেন। বুধবার ভোরে তাকে আটকের পরই এ হত্যাকাণ্ডের রহস্য উদঘাটন হয়।






মন্তব্য চালু নেই