মেইন ম্যেনু

সুবিধাবঞ্চিতদের পাশে ওরা ক’জন

ইয়াজিম ইসলাম পলাশ, রাবি প্রতিনিধি: তীব্র শীতের রাত। স্টেশনের প্লাটফর্মের উপরে পড়ে আছেন বেশ কিছু মানুষ। তাদের গায়ে জীর্ণশীর্ণ কাপড়। কেউ বা ছেঁড়া কাঁথা মুড়ি দিয়ে যুদ্ধ করছেন শীতের বিরুদ্ধে। তাদেরকে শীত থেকে রক্ষা করতে এগিয়ে এসেছেন ক’জন যুবক। মানবতার পাশে দাঁড়াতে প্রত্যেকের গায়ে জড়িয়ে দিচ্ছেন কোম্বল আর শীতের পোশাক। গত শুক্রবার তার সাড়ে ১২টায় রাজশাহীর রেল স্টেশনের চিত্র এটি।

সোস্যাল সার্ভিস নামের সংগঠনের জন কয়েক যুবকের উদ্যোগে দেড়’শ পিস কম্বোলসহ শীতের কাপড় বিতরণ করা হয়। কম্বোল দেয়া হচ্ছিলো অন্ধ ভিক্ষুক আব্দুল করিমকে। এসময় তিনি আবেগাপ্লুত হয়ে বলেন, ‘জারের রাইতে অনেক কষ্টে কাটে। কেউ আমাগ্যারে খোঁজ রাহে না। ছাওয়ালগুলোর জন্যে মন থেইক্যা দোয়া বের অয়। তারা নিজেগ্যারে পহেটের ট্যাহা খরচ হইরা আমাগ্যারে কষ্ট দূর হরতেছে।’

এমন উদ্যোগ সম্পর্কে জানতে চাইলে সংগঠনের সদস্য ফারহান শাহ নেওয়াজ বলেন, ‘অনেক সংগঠন শীতের কাপড় বিতরণ করে। তবে সেসব কাপড় একই জন দুই বার নেয় এমনও হয়। যাদের পাওয়া দরকার তারা দেখা যায় পায়নি। তাই সুবিধাবঞ্চিতদের অধিকার বুঝিয়ে দিতে আমরা রাতে বের হয়েছি।’

সংগঠনের বিষয়ে জানতে চাইলে আরেক সদস্য আহমেদ আল ফারাজ বলেন, ‘কিছুদিন আগে শীতের মধ্যে আমরা কয়েক বন্ধু ঘুরতে বের হই। রাত্রে বাইরে থেকে শীতের কষ্ট অনুভব করতে পারি। সেদিন অনুধাবন করলাম, সুবিধাবঞ্চিত মানুষগুলো শীতের মধ্যে কত কষ্ট করে। সবাই সিদ্ধান্ত নিলাম হাত খরচের টাকা জমিয়ে মানুষের জন্য কিছু করতে হবে।’

আরেক সদস্য তৌফিক তাজ বলেন, ‘রাজশাহী অনেক শীত প্রবণ এলাকা। শীতের সময় এখানকার ভূমিহীন মানুষগুলো পথে ঘাটে অনেক কষ্টে জীবন কাটায়। এদের একটু সহযোগিতা করতে পেরে অনেক শান্তি পেয়েছি। সমাজের সচেতন সবাই একটু করে এগিয়ে আসলে আর মনুষগুলোকে এভাবে কষ্ট করতে হতো না।’






মন্তব্য চালু নেই