মেইন ম্যেনু

সুন্দরগঞ্জে যৌতুক দাবীতে স্ত্রীকে হত্যা, স্বামী পলাতক

নুরুল আলম ডাকুয়া, সুন্দরগঞ্জ (গাইবান্ধা) প্রতিনিধি: গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে যৌতুক দাবীতে জিতু রাণী বর্মনী (২২) নামে এক সন্তানের জননীকে হত্যার পর পালিয়েছে পাষ- স্বামী।
বিভিন্ন সুত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার ভোর ৫টার দিকে উপজেলার রামজীবন ইউনিয়নের দক্ষিণ রামজীবন গ্রামের ধীরেন্দ্র নাথ বর্মণের পুত্র পলাশ চন্দ্র বর্মণের স্ত্রী জিতু রাণীকে নির্যাতনের পর মুখে এসিড ঢেলে দেয় পলাশ ও তার মা, বোন মিলে পরিবারের অন্যান্যরা। এতে জিতু রাণী অসুস্থ্য হলে তাকে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। সেখানে কর্তব্যরত ডাক্তাগণ তাকে মৃত ঘোষণা করেন। জিতু রাণী জেলার পলাশবাড়ি উপজেলার কোমরপুর গ্রামের কমলাকান্ত বর্মণের মেয়ে। বিগত দুই/আড়াই বছর পূর্বে জিতু রাণী ও পলাশের বিয়ে হয়। তাদের দুজনের সংসারে রয়েছে ৪ মাসের পুত্র সন্তান। বিয়ের পর থেকে যৌতুক দাবীতে পলাশ ও তার পরিবারবর্গ জিতু রাণীকে নানাভাবে নির্যাতন করে আসছিল বলে জিতুন রাণী কাকাতো ভাই প্রদীপ কুমার বর্মণ থানায় অভিযোগ করেছেন। মর্মে থানার এসআই মামুনুর রশিদ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন বলে জানা গেছে।






মন্তব্য চালু নেই