মেইন ম্যেনু

সাহারা মরুভূমি মানুষের তৈরি!

১০ হাজার বছর আগে সাহারা অঞ্চল সবুজ ছিল। পরে তা মরুভূমিতে পরিণত হয়। এ পরিবর্তনের পেছনে এতদিন প্রাকৃতিক কর্মকাণ্ডকেই দেখা হতো। কিন্তু ফ্রন্টিয়ারস ইন আর্থ সায়েন্স জার্নালে প্রকাশিত গবেষণা থেকে উঠে এসেছে চাঞ্চল্যকর তথ্য। সিওল বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা দাবি করছেন, সাহারা মরুভূমি মানুষের তৈরি।

জিনিউজের প্রতিবেদনে বলা হয়, এতদিন মনে করা হতো, পৃথিবীর কক্ষপথগত পরিবর্তন এ মরুভূমি তৈরির পেছনে কাজ করেছে। কিন্তু নব্যপ্রস্তর যুগে এ অঞ্চলে মানবিক কারণেই পরিবর্তন ঘটতে শুরু করে। বৃষ্টিপাত কমে আসে সাহারায়। ইউরোপ, আমেরিকা ও নিউজিল্যান্ডে এমন পরিবর্তন পরেও দেখা যায়।

সাহারা অঞ্চলের পশুপালন সভ্যতার নিদর্শনগুলো পরীক্ষা করে দেখা যায়, দক্ষিণ সাহারায় এক সময় এ সভ্যতা রীতিমতো সক্রিয় ছিল। ধীরে ধীরে এখানে ঝোপ জাতীয় উদ্ভিদ বাড়তে শুরু করে। পরে তা মরুভূমিতে পরিণত হয়। পশুপালন সভ্যতা ক্রমে পশ্চিম দিকে সরে যেতে শুরু করে। সাহারার এক বিপুল এলাকা ঝোপ অধ্যুষিত হতে শুরু করে। পশুপালন অর্থনীতি ক্রমে কৃষির দিকে মোড় নেয়। পশ্চিমে উর্বর জমির সন্ধান চলতে থাকে।

সাহারা ক্রমেই জনশূন্য হয়ে পড়ে। পশুপালনে অরণ্যভূমি আগেই ধ্বংস হয়। কেননা পশুপালনের উপযোগী চারণভূমি তৈরি করতে বিপুল গাছ কাটা হয়। এতে কমে আসে বৃষ্টি। সাহারায় মরুর হাত প্রসারিত করতে থাকে।






মন্তব্য চালু নেই