মেইন ম্যেনু

সার্টিফিকেট বাণিজ্য: ইউজিসির কমিটি গঠন

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন থেকে শুরু করে শিক্ষার্থীদের পাস করিয়ে দেয়া পর্যন্ত পদে পদে অর্থের অবৈধ লেনদেন হয় এমন তথ্য ওঠে এসেছে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের (টিআইবি) গবেষণা প্রতিবেদনে। বিষয়টি খতিয়ে দেখতে তিন সদস্য বিশিষ্ট একটি কমিটি গঠন করেছে বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি)।

সোমবার ইউজিসির ১৩৭তম পূর্ণ কমিশন সভায় এই কমিটি গঠন করা হয়। তবে কমিটি কবে নাগাদ প্রতিবেদন প্রকাশ করবে তা নির্ধারণ করা হয়নি।

এর আগে সোমবার রাজধানীর ব্র্যাক ইন সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে টিআইবির প্রতিবেদনে বলা হয়, বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে ক্লাস না করে, পরীক্ষা না দিয়ে টাকার বিনিময়ে সার্টিফিকেট পাওয়া যায়। শিক্ষা খাতটি মুনাফাভিত্তিক খাতে পরিণত হওয়ায় ট্রাস্টিবোর্ড নিয়ে দ্বন্দ্ব, ক্যাম্পাস দখল, শিক্ষার পরিবেশ বিনষ্ট, উদ্যোক্তাদের সামাজিক, রাজনৈতিক প্রভাবের কাছে তদারকি বা নিয়ন্ত্রণকারী কর্তৃপক্ষ অসহায় হয়ে পড়েছে। শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও ইউজিসির অপর্যাপ্ত জনবল, অর্থিক সক্ষমতা না থাকায় সুষ্ঠু তদারকির অভাব লক্ষ করা গেছে।

এর পরিপ্রেক্ষিতে শিক্ষা মন্ত্রণালয়, ইউজিসি ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্তদের একাংশের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগগুলো যথাযথভাবে খতিয়ে দেখতে ইউজিসি চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. এ কে আজাদ চৌধুরী তিন সদস্য বিশিষ্ট একটি কমিটি গঠন করেছেন।

কমিটির আহ্বায়ক বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. এ কে এম নূর উন নবী। ওপর দুই সদস্য হলেন- সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মো.শহীদ উল্লাহ তালুকদার এবং খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মুহাম্মদ আলমগীর।

কমিটির সাচিবিক দায়িত্ব পালন করবেন ইউজিসি সচিব ড. মো. খালেদ।






মন্তব্য চালু নেই