মেইন ম্যেনু

সাবেক প্রেমের মুখোমুখি হলে

একটা সম্পর্ক শুরু করেছিলেন হাজারো স্বপ্ন বুনে। কিন্তু কোনো কারণে সেই সম্পর্ক শেষ হয়েছে অশ্রবিসর্জনের মধ্য দিয়ে। সম্পর্ক শেষ হলে জীবনতো থেমে থাকে না। জীবনকে সামনে এগিয়ে নিতে আবার নতুন করে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তুলেছেন। তারপর একসঙ্গে শপিং করছেন, ঘুরে বেড়াচ্ছেন, খাওয়া-দাওয়া করছেন। বর্তমান প্রেমিক কিংবা প্রেমিকা সঙ্গে থাকা অবস্থায় গোলাকার এই পৃথিবীতে চলতে চলতে এক সময় আপনার সাবেক প্রেমিক কিংবা প্রেমিকার সঙ্গে দেখা হয়ে গেল। দেখা হওয়া মাত্র ফ্লাশব্যাকে সাদাকালো ছবির মতো একের পর এক অতীতের কথা মনে হতে পারে। বুকের ভেতর খাঁ খাঁ করে উঠতে পারে পুরোনো স্মৃতি মনে করে। এমন জটিল পরিস্থিতিতে অনেকেই হয়তো নিজেকে সামলে নিতে পারেন আবার অনেকেই অনেক বেশি আবেগী হয়ে পরেন।

জটিল পরিস্থিতি সামলে নিতে সাবেক প্রেম কিভাবে শেষ হয়েছে তার ওপর অনেকটা নির্ভর করবে। সাবেক প্রেমের সঙ্গে দেখা হলে অতীত নিয়ে কোনো কথা বলবেন না। তবে বর্তমান এবং ভবিষ্যত নিয়ে কথা বলতে পারেন। কোথায় আছ, কি করছ, কেমন চলছে দিনকাল। অতীত আর বর্তমানের মধ্যে স্বচ্ছতা ও সমতা আনার চেষ্টা করতে পারেন। তবে আগের সম্পর্ক তিক্তভাবে শেষ হলে পরিস্থিতি বুঝে এড়িয়ে চলুন।

তিক্তভাবে শেষ হলেও আক্রমনাত্মক কিংবা হিংসাপরায়ন হবেন না। নিজের আত্মসম্মান বজায় রেখে কথা বলুন। যতটা সম্ভব বন্ধুত্বপূর্ন সম্পর্ক বজায় রাখার চেষ্টা করুন। তবে বন্ধুত্বের সম্পর্কে যেন ফেলে আসা সম্পর্কের প্রভাব না পড়ে।

সম্পর্ক শুরুর দিকে বর্তমান প্রেমিক কিংবা প্রেমিকাকে পুরোনো সম্পর্কের একটা ধারণা দিয়ে রাখতে পারেন। দেখা হলে সহজে জটিলতা কাটিয়ে উঠতে পারবেন।

সাবেকের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দিলে বর্তমান প্রেমিক কিংবা প্রেমিকা যদি খুব বেশি প্রশ্ন করেন কিংবা কিভাবে পরিচয়, কেন আগে বলো নি, কেন সম্পর্ক ভেঙ্গে গেলো এধরণের একের পর এক বিরক্তিকর প্রশ্নবানে আপনাকে জর্জরিত করে তোলে তাহলে আপনাকে বুঝতে হবে আপনার বর্তমান সম্পর্ককেও অতীত করার সময় চলে এসেছে। আর বর্তমান প্রেমিক কিংবা প্রেমিকা যদি আধুনিক মন-মানসিকতার হয়ে থাকে তাহলে সে সাবেক প্রেমকে স্বাভাবিকভাবে নেয়ার চেষ্টা করবে।

সাবেক প্রেমের সঙ্গে দেখা হলে অস্বস্তিবোধ আসাটা স্বাভাবিক। এমনটা বললেন নিপা। ‘অস্বস্তি আসলেও তারপরও স্বাভাবিকভাবে হাই, হ্যালো হতে পারে। কেমন আছো, যদি বিয়ে করে থাকে তাহলে তোমার স্বামী কিংবা স্ত্রী কেমন আছে, বাসার সবাই কেমন আছে। কেমন চলছে তার দিনকাল। এমন স্বাভাবিক কিছু কথোপকথন হতে পারে। খুব অল্প সময়ের মধ্যে সুন্দরভাবে বিদায় নেয়া যেতে পারে।’ বাংলামেইলকে বললেন গৃহিনী আফরিন জাহান নিপা।

ক্লাউড আইটি লিমিটেডের সিনিয়র এক্সিকিউটিভ অফিসার অমিত কুমার রায় বলেন, প্রেম শেষ হয়ে গেলেইতো সম্পর্ক শেষ হয়ে যায় না। চলার পথে সাবেক প্রেমিক কিংবা প্রেমিকার সঙ্গে দেখা হতেই পারে। দেখা হলে বর্তমান প্রেমিকা কিংবা প্রেমিকের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে যতটা সম্ভব ভাল ব্যবহার করা উচিত, ঠিক যেমনটা ভাল বন্ধুর সাথে অনেকদিন পরে দেখা হলে আমরা করে থাকি। তবে খুব বেশি আবেগী হওয়া যাবে না। নিজের আবেগকে নিয়ন্ত্রণের মধ্যে রেখে কথা বলতে হবে।

উত্তরা ব্যাংকের সিনিয়র অফিসার সেলিম গাজী বাংলামেইলকে বলেন, ‘সাবেক প্রেমিক কিংবা প্রেমিকার সঙ্গে দেখা হলে খুব সাধারণ কথা হতে পারে। এবং তার সঙ্গে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক বজায় রাখা যেতে পারে। তবে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কের মধ্যে যেন ফেলে আসা সম্পর্কের প্রভাব না পড়ে সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।,

অবন্তী ও মুগ্ধ একই এলাকার এবং বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ালেখা করতেন। বিশ্ববিদ্যালয় থেকেই তাদের ও প্রেম। কিন্তু পরিবারের তীব্র আপত্তির কারণে তাদের পরিনয় হয় নি। কিন্তু একই এলাকার হওয়ার সুবাদে অনেকবার দেখা হয়েছে কিন্তু কোনো কথা হয় নি। এ ব্যাপারে অবন্তী বলেন ‘পুরোনো স্মৃতি মনে পড়লে খুব বেশি আবেগী হয়ে পড়ি। বিয়ের পর অনেকবার বাসার সামনে ও বিভিন্ন অনুষ্ঠানে সাবেক প্রেমিকের সঙ্গে দেখা হয়েছে কিন্তু নিজেকে সামলে নিতে পারবো কিনা, সে ভয়ে কখনো সামনে এগিয়ে যাই নি।’






মন্তব্য চালু নেই