মেইন ম্যেনু

পে-কমিশনের প্রতিবেদন পেশ

সর্বনিম্ন ৮২০০, সর্বোচ্চ ৮০ হাজার টাকা বেতনের সুপারিশ

সরকারি কর্মকর্তা কর্মচারীদের বেতনভাতাসংক্রান্ত পে-কমিশনের প্রতিবেদন অর্থমন্ত্রীর কাছে পেশ করা হয়েছে। এই প্রতিবেদনে সরকারি কর্মকর্তা কর্মচারীদের মূল বেতন সর্বোচ্চ ৮০ হাজার টাকা এবং সর্বনিম্ন আট হাজার ২০০ টাকা প্রদান করা প্রস্তাব দেয়া হয়েছে। এছাড়া মন্ত্রিপরিষদ ও প্রধানমন্ত্রীর মুখ্যসচিবের বেতন প্রস্তাব করা হয়েছে মাসিক এক লাখ টাকা।

ড. ফরাসউদ্দিনের নেতৃত্বে ১৭ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিতের কাছে রোববার সকাল ৯টায় এই প্রতিবেদন জমা দেন।

ফরাসউদ্দিন বলেন, এই কাঠামোয় সর্বনিম্ন ও সর্বোচ্চ গ্রেডে ১০০ শতাংশ পর্যন্ত বেতন বৃদ্ধির সুপারিশ করা হয়েছে। আর মাঝের গ্রেডগুলোতে বেতন বাড়বে বিভিন্ন পর্যায়ে।
প্রতিবেদন পাওয়ার পর অর্থমন্ত্রী বলেন, এটি একটি ভালো রিপোর্ট। সরকার খুশি মনে এ নতুন বেতন কাঠামো ২০১৫-১৬ অর্থবছর (আগামী ১ জুলাই) থেকে কার্যকর করবে। তবে এজন্য মূল্যস্ফীতি বাড়বে না বলে জানান তিনি।

প্রস্তাবিত অষ্টম বেতন কাঠামোতে ১৬টি স্কেল গ্রেড রাখা হয়েছে। এ ছাড়া বাড়ি ভাড়া, গৃহনির্মাণ, চিকিৎসা ভাতাসহ অন্যান্য আর্থিক সুবিধা বাড়ানোর প্রস্তাবও থাকছে।

পে কমিশনের প্রস্তাবে প্রতিবছর ১৫ জুলাই নতুন বছরে ইনক্রিমেন্ট, অবসরে যাওয়ার সময় ২৫ বছরের পরিবর্তে ২০ বছর এবং বেতন বৃদ্ধির হারে অবসর ভাতা বৃদ্ধি করার প্রস্তাব করা হয়েছে।

বর্তমানে ২০০৯ সালে প্রণয়ন করা বেতন কাঠামো অনুযায়ী, সর্বোচ্চ মূল বেতন ৪৫ হাজার টাকা এবং সর্বনিম্ন চার হাজার ১০০ টাকা। আর এ কাঠামোতে রয়েছে ২০টি গ্রেড। ‘জাতীয় বেতন স্কেল-২০০৯’-এ সর্বোচ্চ ৭৪ শতাংশ পর্যন্ত বেতন বৃদ্ধি করা হয়েছিল। এ মুহূর্তে সরকারি চাকরিজীবীরা ২০ শতাংশ মহার্ঘ্য ভাতা পাচ্ছেন, যা ২০১৩ সালের ১ জুলাই থেকে কার্যকর করা হয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই