মেইন ম্যেনু

শ্রীলঙ্কায় ভূমিধসে নিহতের সংখ্যা ১০০ ছাড়িয়েছে

শ্রীলঙ্কায় ভয়াবহ ভূমিধসে নিহতের সংখ্যা ১০০ ছাড়িয়েছে। দক্ষিণ-মধ্য শ্রীলঙ্কায় বুধবারের ওই ভূমিধসে এখনো দুই শতাধিক লোক নিখোঁজ রয়েছে। কাদা ও ধ্বংসস্তুপের নীচে চাপা পড়া নিখোঁজ ব্যক্তিদের বেঁচে থাকার আশা নেই বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

রাজধানী কলম্বো থেকে ১৯০ কিমি পূর্বে চা-বাগানের ভিতরে অবস্থিত গ্রাম হালদুম্মল্লায় ভূমিধসের এ ঘটনা ঘটে। কয়েকদিনের ভারী বৃষ্টিপাতে সৃষ্ট ভূমিধসে পাহাড়ের কোলে অবস্থিত তিন কি.মিটারের পুরো গ্রামটি চাপা পড়ে, এখানে ১৫০টির মতো বাড়িঘর ছিল।
প্রতিকূল আবহাওয়া ও অন্ধকার নেমে আসায় বুধবার উদ্ধার অভিযান ব্যাহত হওয়ার পর বন্ধ রাখতে বাধ্য হয় কর্তৃপক্ষ। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে উদ্ধার কাজ আবার শুরু করা হয়েছে। ব্যাপক সংখ্যক উদ্ধারকর্মী সেখানে রয়েছেন।
গ্রামটি পরিদর্শন করতে যাওয়া মন্ত্রী অমরাউয়িরা বার্তা সংস্থা এএফপিকে বলেছেন, ‘সেখানে কেউ জীবিত আছে বলে আমার মনে হয় না। ধসে পড়া মাটিতে ১০০ জনের মতো চাপা পড়েছেন। দুর্ঘটনার সময় কিছু শিশু ও কিছু চা শ্রমিক তাদের বাড়িতে ছিল না। ফলে নিহতের সংখ্যা কম হয়েছে।’

তবে শ্রীলঙ্কার দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কেন্দ্রের শেষ হিসেব মতে, এখনো ২ শতাধিক লোক নিখোঁজ রয়েছে। তাই নিহতের সংখ্যা বাড়তে পারে।

মন্ত্রী অমরাউয়িরা জানিয়েছে, ভূমিধসের আশঙ্কা থাকায় ২০০৫ ও ২০১২ সালে দুইবার গ্রামবাসীদের এলাকাটি ছেড়ে অন্য জায়গায় চলে যাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছিল, কিন্তু অনেকেই সেই পরামর্শ উপেক্ষা করে এখানে থেকে যায়।
তল্লাশি ও উদ্ধার অভিযানের গতি বাড়ানোর জন্য ঘটনাস্থলে সেনাবাহিনীর ভারী উদ্ধারকারী যন্ত্রপাতি পাঠানো হয়েছে বলে এক ট্যুইটে জানিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট মাহিন্দা রাজাপক্ষে। সেনাবাহিনীর প্রায় পাঁচশ সদস্য সেখানে উদ্ধার তৎতপরতা চালাচ্ছে।

তথ্যসূত্র : বিবিসি, রয়টার্স।



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই