মেইন ম্যেনু

শিক্ষক বটে!

শ্রেণীকক্ষে বসে পাঠ্যবই নিয়ে বান্ধবীর সঙ্গে কথা বলার অপরাধে এক মেধাবী ছাত্রীকে পিটিয়ে হাসপাতালে পাঠালেন প্রধান শিক্ষক।
ঘটনাটি ঘটেছে গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া উপজেলার ৭০নং হিজলবাড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শনিবার বিদ্যালয়টির ৫ম শ্রেণীর মেধাবী ছাত্রী সেতু বাড়ৈ বিজ্ঞান ক্লাসে তার পাশে বসা বান্ধবীর সঙ্গে পাঠ্যবই নিয়ে কথা বলছিল। এসময় ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বিমলা বাড়ৈ ক্ষিপ্ত হয়ে সেতুকে বেত্রাঘাত করেন। এতে সেতু গুরুতর আহত হয়।
সেতু বাড়ৈ বর্তমানে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছে।
এ ব্যাপারে প্রধান শিক্ষক বিমলা বাড়ৈর কাছে জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, ‘আমি সেতুকে বেত্রাঘাত করিনি।’
উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ডা. নগিবুর ইসলাম বলেন, ‘সেতুর পিঠে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।’
উপজেলা শিক্ষা অফিসার মো. শহিদুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ‘শিক্ষক বিমলা বাড়ৈর বিরুদ্ধে ব্যবস্থাগ্রহণ করা হবে।






মন্তব্য চালু নেই