মেইন ম্যেনু

শাবি যখন রণক্ষেত্র পুলিশ তখন তালাবদ্ধ

বৃহস্পতিবার সকালে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (শাবিপ্রবি) ছাত্রলীগের দুগ্রুপের সংঘর্ষের সময় ৬ পুলিশ সদস্যকে হলের রুমে তালা দিয়ে রেখেছিলেন ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা। সংঘর্ষ শেষ হওয়ার পর জালালাবাদ থানার ওসি (তদন্ত) সুহেল আহমদ তাদের উদ্ধার করেন।

সুহেল আহমদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ‘ক্যাম্পাসে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে শাবিপ্রবি ছাত্রলীগের দুগ্রুপের সংঘর্ষ চলাকালে ছাত্রলীগের কিছু নেতাকর্মী জালালাবাদ থানার ৬ পুলিশ সদস্যকে বঙ্গবন্ধু হলের ২০২ নম্বর রুমে তালা দিয়ে রাখে। পরে তালাবদ্ধ রুম থেকে এক পুলিশ সদস্য মোবাইল ফোনে বিষয়টি থানায় অবগত করেন। এরপর আমরা গিয়ে তাদের উদ্ধার করি।’

তবে ছাত্রলীগের কোন গ্রুপের নেতাকর্মীরা পুলিশকে তালাবদ্ধ করে রাখে তা বলতে পারেননি ওসি সুহেল।

প্রসঙ্গত, ক্যাম্পাসে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে বৃহস্পতিবার সকালে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের দুগ্রুপের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে সুমন চন্দ্র দাস নামে ছাত্রলীগের বহিরাগত এক কর্মী নিহত হন। সংঘর্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরসহ আরো ৫ জন গুলিবিদ্ধ হন। আহত হন আরো অন্তত ১০ জন। সকাল ১০টা থেকে দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত শাবি ছাত্রলীগের অঞ্জন-উত্তম ও পার্থ-সবুজ গ্রুপের মধ্যে এ সংঘর্ষ চলে। পরে পুলিশ গিয়ে রাবার বুলেট ও শর্টগানের গুলি ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।






মন্তব্য চালু নেই