মেইন ম্যেনু

শান্তিরক্ষায় বাংলাদেশের প্রতি কৃতজ্ঞ নিশা দেশাই

জাতিসংঘের শান্তি রক্ষা মিশনে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর অংশগ্রহণ ও সাফল্যে বাংলাদেশের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়া বিষয়ক সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী নিশা দেশাই বিসওয়াল।

শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে গাজীপুরের রাজেন্দ্রপুর সেনানিবাসে বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব পিস সাপোর্ট অপারেশন ট্রেনিং (বিপসট) পরিদর্শন শেষে তিনি সাংবাদিকদের কাছে এ কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

তিনি বলেন, ‘সারা পৃথিবীর শান্তি ও স্থিতিশীলতা রক্ষায় বাংলাদেশ জাতিসংঘের শান্তি রক্ষা মিশনে সবচেয়ে বড় অংশগ্রহণকারী দেশ। এ কারণে শান্তিরক্ষায় বাংলাদেশ নেতৃত্ব স্থানে রয়েছে। শান্তিরক্ষা মিশনে কাজ করতে গিয়ে এর মধ্যে ১১৮ জন বাংলাদেশি প্রাণ হারিয়েছেন এজন্য বাংলাদেশের প্রতি অশেষ কৃতজ্ঞতা।’

এ সময় শান্তি রক্ষা মিশনের কাজে যুক্তরাষ্ট্রের সব ধরণের সহযোগিতা অব্যাহত রাখা হবে বলেও জানান তিনি।

এর আগে শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে বিপসটে এসে পৌঁছলে ওই ইনস্টিটিউটের কমান্ডেন্ট মেজর জেনারেল মাকসুদুর রহমান তাকে স্বাগত জানান।

পরে তিনি রাজেন্দ্রপুর সেনানিবাসে বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব পিস সাপোর্ট অপারেশন ট্রেনিং (বিপসট) পরিদর্শন করেন।

বিপসট পৌঁছে ইনস্টিটিউটের কাছে একটি গাছের চারা রোপণ করেন ও বিপসটের কার্যক্রম ঘুরে দেখেন। পরে প্রশাসনিক ভবনের কনফারেন্স রুমে জাতিসংঘে শান্তি রক্ষা বিষয়ে বিপসটের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করেন।

এসময় বিপসটের সার্বিক কার্যক্রম সম্পর্কে নিশা দেশাইকে অবহিত করা হয়। পরে শান্তি রক্ষাসহ পারস্পরিক স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয়ে আলোচনা করা হয়।

বৈঠকে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত ড্যান ডব্লিউ মজীনাসহ দুই দেশের ঊর্ধ্বতন সামরিক কর্মকর্তারা।

পরে নিশা দেশাই বিদ্রোহী দল দ্বারা আক্রান্ত জাতিসংঘের উদ্বাস্তু বেসামরিক লোকদের উদ্ধারের মহড়া দেখেন এবং শান্তিরক্ষী মিশনে অংশগ্রহণকারী বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর প্রশংসা করেন।






মন্তব্য চালু নেই