মেইন ম্যেনু

লাল সবুজ পতাকা

লাল সবুজ পতাকা
-আবু রায়হান মিকাঈল

 

লাল তাজা রক্তে লেখা বাংলাদেশের নাম,
স্বার্থক হয়েছে আজই বঙ্গ বীরের সংগ্রাম।

নয় মাস রক্তয়ী সংগ্রামে বাঙ্গালী আজ মুক্ত,
রক্তের বাঁধন মুছবে না কভু, বাঙ্গালীর কণ্ঠে ব্যক্ত।

পাকিস্তানী হায়েনার দল চালিয়েছে কত নির্যাতন,
নির্মম দৃশ্য হৃদয় পটে, লাল তাজা রক্ত প্লাবন।

বায়ান্নর ভাষা আন্দোলন একাত্তরের স্বাধীনতা সংগ্রাম,
এ যে বাঙ্গালী জাতীর ইতিহাসে চির অবিস্মরণীয় নাম।

৩০ লক্ষ মা বোনের ইজ্জত কেড়ে নিয়েছে তারা,
পাষান্ড নর পশু চালিয়েছে গণহত্যার নির্মম ধারা।

তাদের হাত থেকে পায়নি রেহায়, নিষ্পাপ শিশুর প্রাণ,
রাজাকার আল-বদররা তাদের সাথে, গেয়েছে আঁতাতের গান।

পঙ্গু করতে চেয়েছিল এদেশ, বুদ্ধিজীবি হত্যা করে,
জ্বলবে না আর জ্ঞানের আলো বাঙ্গালী জাতীর ঘরে।

মায়ের সামনে যুবতী মেয়ে হয়েছে নির্যাতনের শিকার,
পাকিস্তানী হায়েনার পশু, চালিয়েছে নির্মম অত্যাচার।

কেড়ে নিতে চেয়েছিল তারা, বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা,
কিন্তু মুজিব সেনা তাদের করেছিল পাল্টা হামলা।

সেদিন ৭মার্চ বঙ্গবন্ধুর বজ্র-কণ্ঠের ভাষণে,
উদ্যাম সাহস জেগেছিল বাঙ্গালীর মন প্রাণে।

ঝাঁপিয়ে পড়েছিল বাঙ্গালী, পাকিস্তানী শোষকের উপর,
রুদ্ধ করেছিল জুলুম নির্যাতন, শোষণের দিয়েছিল কবর।

মরণ পণ সংগ্রামে বাঙ্গালী অর্জন করেছে স্বাধীনতা,
বুঝিয়ে দিয়েছে বিশ্বে, স্বদেশের প্রতি তাদের কেমন মমতা।

নয় মাস যুদ্ধ করে বাঙ্গালী, পেয়েছে লাল সবুজ পতাকা,
যার মধ্যে বঙ্গবন্ধুর লালিত – স্বপ্নটি রয়েছে আঁকা।






মন্তব্য চালু নেই