মেইন ম্যেনু

লালমনিরহাটে তেল চুরির প্রতিবাদে ট্রেন আটকিয়ে দিলেন বিক্ষুপ্ত জনতা, চালক ও পরিচালক অবরুদ্ধ

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় ট্রেনের তেল চুরি করে বিক্রির প্রতিবাদে মঙ্গবার রাতে বিক্ষুপ্ত জনতা লালমনিরহাট হতে বুড়িমারী গামী একটি ট্রেন আটকিয়ে দিয়েছেন। এ সময় ওই ট্রেনের চালক ও পরিচালককে হাতীবান্ধা স্টেশন মাস্টারের রুমে অবরুদ্ধ করে রাখে বিক্ষুপ্ত জনতা।

ট্রেনের যাত্রীদের অভিযোগ, জেলার কাকিনা রেলওয়ে স্টেশনে ট্রেনটি দীর্ঘক্ষণ অপেক্ষা করতে থাকে। এ সময় কয়েকজন যাত্রী ইঞ্জিনের কাছে গিয়ে দেখতে পায় চালক রাশেদুল ইসলাম মানিক ও পরিচালক মইনুল হকের উপস্থিতিতে ওই ট্রেনের তেল চুরি করা হচ্ছে। এ সময় কামরুল ইসলাম নামে এক কলেজ ছাত্র ছবি তুলতে গেলে তার মোলাইল ফোন কেড়ে নিয়ে তাকে মারধোর করা হয়। পরে খবরটি সাধারণ যাত্রীদের মাঝে ছড়িয়ে পরলে পার্শ্ববর্তী হাতীবান্ধা রেলওয়ে স্টেশনে বিক্ষুপ্ত জনতা ট্রেনটি আটকিয়ে দেয় এবং চালক ও পরিচালককে অবরুদ্ধ করে রাখে। এ সময় তারা পরিচালক ও চালককে গ্রেফতারের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করেন। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ট্রেনটি ওই স্টেশনে আটকা রয়েছে।

হাতীবান্ধা উপজেলা চেয়ারম্যান লিয়াকত হোসেন বাচ্চু, হাতীবান্ধা থানার ও.সি আব্দুল মতিন ও জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন সম্পাদক অধ্যক্ষ সারওয়ার হায়াত খান ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পুরো বিষয়টি খতিয়ে দেখছেন।

লালমনিরহাট বিভাগীয় রেলওয়ে পরিবহণ কর্মকর্তা মোস্তাফিজুর রহমান এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, বিষয়টি উদ্ধর্তন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।






মন্তব্য চালু নেই