মেইন ম্যেনু

রেলমন্ত্রীর গায়ে হলুদ

বুধবার বেলা ১২টার দিকে গায়ে হলুদ অনুষ্ঠান ঢাকার শেরে বাংলা নগর খামার বাড়ি কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশনে শুরু হয়। বিয়ে শুক্রবার কনের পিত্রালয় কুমিল্লার চান্দিনা উপজেলার মিরাখলা গ্রামে অনুষ্ঠিত হবে।

রেলমন্ত্রী ঢাকার বেইলি রোডের সরকারি বাসভবন থেকে বরযাত্রী নিয়ে চান্দিনার মিরাখোলা গ্রামে যাবেন।

সূত্র জানায়, গায়ে হলুদ উপলক্ষে ঢাকার শেরে বাংলা নগর খামার বাড়ি কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশনে অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এর আগে গত ২৭ অক্টোবর বরের বাড়ি চৌদ্দগ্রামের বসুয়ারা গ্রাম থেকে কনের বাড়ি মিরাখোলা গ্রামে হলুদের ডালা পাঠানো হয়েছে। এতে কনের জন্য নাকফুল, প্রসাধনী, হলুদের সরঞ্জাম, হলুদের শাড়ি, জুতা ইত্যাদি পাঠানো হয়।

এদিকে কনে পক্ষও গায়ে হলুদের ডালা নিয়ে ঢাকায় গেছে।

গায়ে হলুদের অনুষ্ঠানস্থলে তিনটি মঞ্চ তৈরি করা হয়েছে। একটিতে বর মুজিবুল হক এবং আরেকটিতে কনে হনুফা আক্তার রিক্তাকে বসানো হবে। অপর মঞ্চে আয়োজন করা হবে সঙ্গীতানুষ্ঠানের। সঙ্গীতানুষ্ঠানের সমন্বয়ক হিসেবে থাকছেন কণ্ঠশিল্পী মমতাজ এম.পি। ওই মঞ্চে আঁখি আলমগীর, কণা ও লিজা গান পরিবেশন করছেন।

জাতীয় সংসদের মহিলা সদস্য তারানা হালিমের নেতৃত্বে ৭ জন মহিলা সংসদ সদস্য গায়ে হলুদের দায়িত্বে রয়েছেন। এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান রাশেদা আখতার জানান, অনুষ্ঠানে চিফ হুইপ উপাধ্যক্ষ আবদুস শহীদ, শেখ সেলিম, জাহাঙ্গীর কবির নানক, মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমপি, তাজুল ইসলাম এমপি, অপু উকিল ও কুমিল্লার আওয়ামী লীগ নেতা অধ্যক্ষ আফজল খান ও অনেকেই রয়েছেন। বিকেলে মমতাজ ও অন্য শিল্পীরা গান গাইবেন।

কনের বাড়ির সকল আয়োজনের দায়িত্ব পালন করছেন কনের খালাত ভাই জাতীয় পাটির নেতা লুৎফুর রেজা খোকন। তিনি জানান, ঢাকায় বুধবার বিকাল ৪টার পর হলুদ শেষে হনুফা আক্তার রিক্তাকে নিয়ে চান্দিনার গ্রামের বাড়িতে ফিরবে কনে পক্ষ। কনের বাড়িতে রাতে গ্রামের প্রতিবেশী ও আত্মীয় স্বজনদের নিয়ে পারিবারিকভাবে গায়ে হলুদের অনুষ্ঠানের আয়োজন রয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই