মেইন ম্যেনু

রূপা গাঙ্গুলির সাত অন্তরঙ্গ দৃশ্য (ভিডিও)

ভারতীয় বাংলা সিনেমার অন্যতম আলোচিত নাম রূপা গাঙ্গুলি। ১৯৮৮ সালে টিভি সিরিয়াল মহাভারতে ধ্রুপদী চরিত্রে অভিনয় করে আলোচনায় এসেছিলেন তিনি। তারপর নানা সিনেমায় অভিনয় করে জিতে নিয়েছেন নানা পুরস্কার,সেই সঙ্গে জিতে নিয়েছেন দর্শকদের মন। কিন্তু পাশাপাশি খোলামেলা দৃশ্যে অভিনয় করে সমালোচিত হয়েছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পাওয়া এ অভিনেত্রী। রুপা গাঙ্গুলির কিছু উল্লেখযোগ্য আবেদনময়ী দৃশ্য নিয়ে আমাদের আজকের আয়োজন।

যুগান্ত : অপর্ণা সেন পরিচালিত যুগান্ত সিনেমাটি মুক্তি পায় ১৯৯৬ সালে। সিনেমাটিতে রূপার বিপরীতে অভিনয় করেছিলেন অঞ্জন দত্ত। বয়স্ক এক দম্পতির আবার নতুন করে ঘনিষ্ঠ হওয়ার কাহিনি নিয়ে তৈরি এ সিনেমা। এখানে সমুদ্রপাড়ে রূপা এবং অঞ্জনের কিছু অন্তরঙ্গ দৃশ্য ছিল যা শিহরণ জাগিয়েছিল সবার মনে।

দত্ত ভার্সেস দত্ত: সিনেমাটি পরিচালনা করেন অঞ্জন দত্ত। সিনেমায় অঞ্জন দত্তর পরকীয়া প্রেমিকার ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন রূপা। তাদের দুজনের সাবলীল চুম্বনের দৃশ্য ভালোই উপভোগ করেছিলেন দর্শকরা।

নাগরদোলা: কৃষ্ণকিশোর মুখার্জির সঙ্গে রূপার চুমুর দৃশ্যই ছিল সিনেমাটির প্রধান আকর্ষণ। এ ছাড়া তেমন কিছুই ছিল না সিনেমাটিতে। আর কিছু থাকলেও পরিচালক তা তুলে ধরতে ব্যর্থ হয়েছেন।

অগ্নিকন্যা: এ সিনেমার নায়ক এবং নায়িকা হলেন বলিউড অভিনেতা ফারুক শেখ ও রূপা। সিনেমায় বেশ কিছু চুম্বন এবং শিহরণ জাগানো দৃশ্যে দেখা গিয়েছিল এ জুটিকে।

এক মুঠো ছবি: অঞ্জন দত্ত পরিচালিত এ সিনেমার প্রযোজনা করেছিলেন রূপা গাঙ্গুলি। পাশাপাশি ছিলেন নায়িকা হিসেবেও। অভিনেতা বিক্রম ঘোষের সঙ্গে উত্তেজক কিছু চুমুর দৃশ্যে এ সিনেমায় দেখা গিয়েছিল এ অভিনেত্রীকে।

গোপালা: ১৯৯৫ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত পায় এ সিনেমাটি। বক্স অফিসে খুব একটা সাড়া ফেলতে পারেনি এ সিনেমাটি। কিন্তু চাঙ্কি পান্ডে ও রূপা গাঙ্গুলির কিছু বৃষ্টিভেজা এবং শয্যাদৃশ্য যথেষ্ট সাড়া ফেলতে সক্ষম হয়েছিল।

পদ্মা নদীর মাঝি: মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়ের উপন্যাস অবলম্বনে নির্মিত এ সিনেমাটি পরিচালিত করেছিলেন গৌতম ঘোষ। সুমন্ত মুখার্জির সঙ্গে পুকুরের মধ্যে ঘনিষ্ঠ অবস্থায় একটি দৃশ্যে দেখা গিয়েছিল এ অভিনেত্রীকে।






মন্তব্য চালু নেই