মেইন ম্যেনু

রাষ্ট্রদ্রোহ মামলায় তারেকের বিচার করার দাবি শেখ সেলিমের

লন্ডনে বসবাসরত বিএনপির সিনিয়র ভাইস-চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলায় বিচারের মুখোমুখি করার দাবি জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম।

সেলিম বলেন, ‘এজন্য তারেক রহমানকে ইন্টারপোলের মাধ্যমে দেশে ফিরিয়ে আনাতে হবে।’ এছাড়া তারেক রহমানের বক্তব্য প্রচার না করার জন্যও তিনি গণমাধ্যমের প্রতি আহ্বান জানান।

মঙ্গলবার দশম জাতীয় সংসদের দ্বিতীয় (বাজেট) অধিবেশনে ২০১৪-১৫ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটের ওপর আলোচনায় অংশ নিয়ে সেলিম এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘আন্দোলনের নামে আবার নৈরাজ্য সৃষ্টির চেষ্টা করলে, যতোই শক্তিশালী হোক, বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেয়া হবে।

অধিবেশনের শুরুতে আলোচনায় অংশ নিয়ে তারেক রহমানের নাম উল্লেখ না করে শেখ সেলিম বলেন, ‘পাকিস্তানের গোয়েন্দা সংস্থা আইএসআই থেকে টাকা খেয়ে বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রী সম্পর্কেও কটুক্তি করতে দ্বিধা-বোধ করছে না ওই ‘বেয়াদবটা’। রাষ্ট্র, সংবিধান, গণতন্ত্র, দেশ ও জনগণের বিরুদ্ধে যেহেতু সে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে, সে কারণে তার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা করে ব্যবস্থা নেয়া হোক।’

বাজেট আলোচনায় অংশ নিয়ে হাছান মাহমুদ খন্দকার বলেন, ‘বিএনপি কথায়-কথায় সরকারকে অবৈধ বলছে। এখন বিদেশিদের দুয়ারে-দুয়ারে তারা ধর্ণা দিচ্ছে। অর্থনীতিকে ধ্বংস করার ষড়যন্ত্র করছে। যারা এভাবে মিথ্যা বলেন, কোরআনে তাদেরকে ‘ফাসেক’ বলা হয়েছে।’

বাজেট আলোচনায় অংশ নিয়ে বিরোধী দলীয় চিফ হুইপ তাজুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, ‘সরকারি দলের মন্ত্রী-এমপিরা প্রতিদিন সংসদে বিএনপি-জামায়াতকে নিয়ে কথা বলছেন। তাদের বিষয়ে এখানে যতবেশি কথা বলা হচ্ছে, ততোই তারা আলোচনায় আসছে, পত্রিকার শিরোনাম হচ্ছে, হাইলাইটস হয়ে যাচ্ছে। আমরা যেন তাদেরকে (বিএনপি-জামায়াত) বোনাস সুযোগ দিচ্ছি। কিন্তু আমরা এই সুযোগ কেন দিচ্ছি?’



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই