মেইন ম্যেনু

যে ৫টি অস্বাভাবিক বিমান দুর্ঘটনার রহস্য অজানা!

মালয়েশিয়ান এয়ারলাইন্সের ফ্লাইট MH 370 অস্বাভাবিকভাবে উধাও হওয়ার ঘটনা কে না জানে! তবে ইতিহাসের পাতায় এমন আরও অসংখ্য উদাহরণ আছে। কেন এবং কীভাবে ফ্লাইট MH 370 অস্বাভাবিকভাবে উধাও হল তার কারণ এখনও জানা যায়নি। তবে, ওই বিমানে জাল পাসপোর্টধারী দুই যাত্রী ছিল বলে জানা যায়। এবার আরো ৫টি অস্বাভাবিক বিমান দুর্ঘটনা সম্পর্কে জেনে নিন-

১. ১৯৪৪ সালে জনপ্রিয় বিগ ব্যান্ড লিডার ‘গ্লেন মিলার’ আমেরিকার আর্ম ফোর্স-এ স্ট্রিং পারফর্মেন্সের জন্য যান। পরদিন প্যারিস যাওয়ার সময় ইংলিশ চ্যানেলের উপর থেকে তাঁর প্লেনটি উধাও হয়ে যায়। অনেকের মতে, অগ্নিবিস্ফোরণের কারণে প্লেনটি ক্র্যাশ করে। তবে সবচেয়ে মজার তথ্যও পাওয়া যায় যে, মিলার নাকি হার্ট অ্যাটাকে মারা গেছেন।

২. ১৯৪৫ সালে প্রথম বারমুডা ট্রায়েঙ্গেলের আবির্ভাব ঘটে। ঘটনাটি ছিল ১৪ জন নৌবাহিনীর ট্রেইনির। অভিজ্ঞ পাইলট চার্লস ফ্লোরিডা থেকে গন্তব্যের দিকে যাওয়ার সময় বারমুডার উপর থেকে প্লেনসহ হারিয়ে যান। জানা যায়, আবহাওয়ার হঠাৎ পরিবর্তনের কারণে প্লেনটিকে খুঁজে পাওয়া যায়নি। তবে ভূতুড়ে হলেও সত্যি যে, প্লেনটি সম্পর্কে আরও তথ্য নিতে আরেকটি বিমান পাঠানো হলে সেটিও আর ফেরত আসেনি।

৩. ১৯৪৭ সালে আর্জেন্টিনা থেকে সান্তিয়াগো যাওয়ার সময় ব্রিটিশ সাউথ এয়ারওয়েজ এর ‘স্টার ডাস্ট’ বিমানটি আন্দিজ পর্বতের উপর আঘাত হানে এবং গন্তব্যে পৌঁছতে পারেনি। গবেষণায় বলা হয়, ভিনগ্রহের কোন যন্ত্রের মাধ্যমে বিমানটিতে আঘাত ঘটানো হয়েছিল। এই ঘটনার ৫০ বছর পর আর্জেন্টিনার দুই ব্যক্তি বিমানটির কিছু ধ্বংসাবশেষ খুঁজে পাওয়া যায়।

৪. ১৯৯৯ সালে ফ্লাইট ১৯১ শিকাগো থেকে যাত্রা শুরু করার কিছুক্ষণের মধ্যে বিধ্বস্ত হয়। সবচেয়ে আজব ব্যাপার হল, এরপর যত বিমান এই নামে করা হয়েছিল সবই গন্তব্যে যাওয়ার আগেই ধ্বংস হয়ে যায়।

৫. উরুগুয়ের একটি প্লেন খারাপ আবহাওয়ায় পরে আন্দিজ পর্বতে আছড়ে পড়ে। ৪৫ জনের মধ্যে মাত্র ১৬ জন ঘটনাস্থলে বাকিদের মৃতদেহ খেয়ে বেঁচেছিলেন। ১৯৯৩ সালে এই অবিশ্বাস্য ঘটনা নিয়ে একটি সিনেমাও করা হয়। সূত্র: কলকাতা টুয়েন্টিফোর।






মন্তব্য চালু নেই