মেইন ম্যেনু

যুবদলের মিছিলে পুলিশের পিটুনি, ভাঙল রাইফেল (ভিডিওসহ)

নারায়ণগঞ্জে মহানগর যুবদলের নেতাকর্মীদের লাঠি ও রাইফেল দিয়ে পিটিয়েছে পুলিশ। এলোপাতাড়ি পেটানোর ফলে এক পুলিশ সদস্যের রাইফেলের বাঁট ভেঙে যায়।

কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে নারায়ণগঞ্জ মহানগর যুবদল বৃহস্পতিবার বিকেলে শহরে মিছিল বের করলে এই ঘটনা ঘটে। পুলিশের পিটুনিতে যুবদলের ১০ নেতাকর্মী আহত হয়েছেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে মহানগর যুবদলের আহ্বায়ক কাউন্সিলর মাকছুদুল আলম খন্দকার খোরশেদের নেতৃত্বে মিছিল বের হয়। শহরের জিমখানা এলাকা থেকে মিছিলটি বের হয়ে ডিআইটি এলাকায় জেলা বিএনপি কার্যালয়ের সামনে এলে পুলিশ বাধা দেয়। এ সময় পুলিশের সঙ্গে নেতাকর্মীদের প্রথমে বাকবিতণ্ডা হয়। পরে দুই পক্ষের মধ্যে ধাক্কাধাক্কি শুরু হয়। একপর্যায়ে পুলিশ সদস্যরা মিছিলকারীদের লাঠি ও রাইফেল দিয়ে পেটাতে শুরু করেন।

পিটুনিতে যুবদলের আহ্বায়ক কাউন্সিলর মাকছুদুল আলম খন্দকার খোরশেদ, যুবদল নেতা জুলহাস, মনির, আল-আমিন, ইউনুছ খান বিপ্লব, পিন্টু, আফতাব, সুমন, শহীদ ও অ্যাডভোকেট ভাসানী আহত হন। পুলিশ সদস্যরা খোরশেদকে টেনেহিঁচড়ে নিয়ে যাওয়ার সময় নেতাকর্মীরা তাঁকে ছিনিয়ে রাখেন। এরপর যুবদলের নেতাকর্মীরা বিএনপি কার্যালয়ের সামনে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করেন।

কাউন্সিলর খোরশেদ বলেন, সম্পূর্ণ রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে জাতীয়তাবাদী শক্তিকে ধ্বংস করার জন্য হীন ষড়যন্ত্র ও কূটকৌশলের নিরবচ্ছিন্ন অংশ হিসেবে দেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় নেত্রী বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে কুমিল্লায় মনগড়া মিথ্যা মামলায় অভিযোগপত্র দেওয়া হয়েছে। এ সরকার ও তাদের প্রভুদের নীলনকশার অংশ হলো খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলায় অভিযোগপত্র দাখিল।

বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও জেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট তৈমূর আলম খন্দকার বলেন, খালেদা জিয়াকে বন্দি করে আওয়ামী লীগ চায় এদেশে স্থায়ী বাকশালী একদলীয় শাসন কায়েম করতে। দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে গণতন্ত্রকামী মানুষ শেখ হাসিনার সব ষড়যন্ত্র নস্যাৎ করে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করবে ইনশাল্লাহ।

যুবদলের মিছিলে হামলা প্রসঙ্গে সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসাদুজ্জামান জানান, যুবদলের নেতাকর্মীরা মিছিলটি শহরের প্রধান সড়কে নিয়ে যেতে চাইলে তাঁদের কার্যালয়ের সামনে থাকারই অনুরোধ করা হয়। কিন্তু তাঁরা পুলিশের ওপর চড়াও হলে মিছিলটি ছত্রভঙ্গ করে দেওয়া হয়।






মন্তব্য চালু নেই