মেইন ম্যেনু

যশোরে ব্যাপক কর্মসুচীর মধ্যদিয়ে মহান বিজয় দিবস উদযাপিত

সারা দেশের ন্যায় যশোরেও ব্যাপক কর্মসুচীর মধ্যদিয়ে মহান বিজয় দিবস উদযাপিত হয়েছে।কর্মসুচীর মধ্যেছিল বিজয়স্তম্ভে পুষ্পস্তববক অর্পণ, কুচকাওয়াজ ও মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা, শহরের প্রধান প্রধান সড়কে তোরণ,আলোকসজ্জা ও মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।
রোববার রাত ১২টা ১ মিনিটে ৩১ বার তোপধ্বনির মাধ্যমে বিজয় দিবসের কার্যক্রম শুরু করেন যশোর জেলা প্রশাসন ডক্টর হুমায়ূন কবির।
সকালে বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার হাজার হাজার মানুষ শহরের মণিহার বাসস্ট্যান্ড এলাকায় বিজয়স্তম্ভে পুষ্পস্তববক অর্পণ করে। সকাল ৯টায় যশোর শামস-উল-হুদা স্টেডিয়ামে কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠিত হয়। এতে অভিবাদন গ্রহণ করেন জেলা প্রশাসন ডক্টর হুমায়ূন কবির। এ সময় উটস্থিতছিলেন যশোর পুলিশ সুপার আনিছুর রহমান। যশোর টাউন হল ময়দানে দিবসটি উপলক্ষে শহীদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্য ও মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা দেওয়া হয়।
বিজয় দিবস উপলক্ষে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়সহ শহরের বিভিন্ন এলাকার প্রধান প্রধান ভবনে আলোকসজ্জা করা হয়। এ ছাড়া যশোর পৌর প্রশাসনের উদ্যোগে একাধিক সড়কে তোরণ নির্মাণ করা হয়েছে। ওই দিন বিকেল থেকে গভীর রাত শহরের বিভিন্ন এলাকায় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্যদিয়ে কর্মসুচী শেষ হয়।
বিজয় দিবস উপলক্ষে যশোর জেলা
বিএনপি র‌্যালি ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত
মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে যশোর জেলা বিএনপি ও তার অঙ্গ সংগঠন তিন দিনের কর্মসূচি পালন করেছে।
তিন দিনের কর্মসূচির শেষ দিন বুধবার সকালে যশোর জেলা বিএনপির দলীয় কার্যালয় থেকে র‌্যালি বের করে।এতে দলের কয়েক হাজার নেতাকর্মী অংশ নেয়। র‌্যালি শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে দলীয় কার্যালয়ে এসে শেষ করে। এর আগে দলীয় কার্যালয়ের সামনের এক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ সময় বক্তব্য রাখেন বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য টিএস আইয়ুব, জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট সৈয়দ সাবেরুল হক সাবু, দেলোয়ার হোসেন খোকন, নগর বিএনপির সভাপতি ও যশোর পৌরসভার মেয়র মারুফুল ইসলাম প্রমুখ।






মন্তব্য চালু নেই