মেইন ম্যেনু

যশোরের শার্শায় স্কুল ছাত্রীর রহস্যজনক মৃত্যু

জসিম উদ্দীন, বেনাপোল (যশোর) ॥ শার্শার নাভারণে রুমি আক্তার ( ১৫ ) নামে এক স্কুল ছাত্রীর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার বিকালে। নিহতের পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার সকালে রুমি আক্তার প্রতিদিনের ন্যায় স্কুলে যায়। টিফিন চলাকালে রুমি-ইতি ও অন্য একটি বান্ধবিকে নিয়ে বাড়িতে এসে দ্বিতীয় সিফটে আর স্কুলে না যেয়ে বাড়িতেই থাকে। বান্ধবিরা তিন ঘন্টা আড্ডা দিয়ে চলে যাওয়ার আধাঘন্টা পরে নিহত রুমি আক্তারের মা বিউটি খাতুন মেয়ের ঘরে গিয়ে দেখতে পায় গলায় রশি দিয়ে রুমি ঝুলে আছে। রুমি শার্শার খাসখালী গ্রামের জাহাঙ্গীর আলমের ছোট মেয়ে এবং নাভারণ সাতক্ষীরা মোড়ের আমিনুরের বাসার ভাড়াটিয়া। রুমি আক্তার শার্শার নাভারণের বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ১০ম শেণীর ছাত্রী। সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, রুমি আক্তার নিজের বেড রুমে গলায় রশি দিয়ে ঝুলে আছে। পা দুখানা মাটিতে হাটু ভাজ হয়ে আছে এবং গলায় কোন দাগ বা কোন খতচিহ্ন নাই। শার্শা থানার ওসি তদন্ত মহি উদ্দিন সাংবাদিকদের জানান, আত্যহত্যার ঘটনাটি রহস্যজনক হওয়ায় লাশ ডিএনএর জন্য নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। প্রকৃত সত্য ঘটনা উদঘাটনের সময় লাগবে। তবে ডিএনএর পর সঠিক সত্যতা জনা যাবে বলে তিনি জানান।






মন্তব্য চালু নেই