মেইন ম্যেনু

মোবাইলের মাধ্যমে পাওয়া যাবে অতিবৃষ্টি ও বন্যার পূর্বাভাস

বাংলাদেশে আগামী বছর থেকে মোবাইলের মাধ্যমে অতিবৃষ্টি ও বন্যার বিষয়ে আগাম তথ্য জানা যাবে। এ ব্যাপারে বাংলাদেশকে বন্যার আগাম তথ্য জানাতে সহায়তা দেবে জাপান। জাপানের স্যাটেলাইট ‘হিওয়ারি’ থেকে বাংলাদেশ সরকার মোবাইল ফোনের মাধ্যমে সরাসরি জনগণকে বন্যার তথ্য সরবরাহ করবে।

এ বিষয়ে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক (এডিবি) এবং জাপান এ্যারোস্পেস এক্সপ্লোরেশন এজেন্সি (জাক্সা) বাংলাদেশ সরকারকে সহযোগিতা দেবে। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

সূত্র জানায়, ইতোমধ্যেই এ বিষয়ে একটি প্রাথমিক পরীক্ষাও চালিয়েছে জাপান। তবে আগামী বছরের জুলাই মাস থেকে চূড়ান্তভাবে এ পদ্ধতি চালু হবে। এডিবির ফান্ড থেকে জাপানকে এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় অর্থ দেয়া হবে।

জানা যায়, জাপানী স্যাটেলাইটের মাধ্যমে যে পূর্বাভাস পাওয়া যাবে সেটাই বাংলাদেশের জনগণ মোবাইল ফোনের মাধ্যমে জানবেন। এর মাধ্যমে অতিবৃষ্টি এবং বন্যাজনিত ক্ষয়ক্ষতি অনেক কমানো সম্ভব হবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা। এডিবি এবং জাক্সার সহযোগিতায় একটি কম্পিউটারাইজড পদ্ধতি গড়ে তোলা হবে যেখানে জাপান স্যাটেলাইট তাদের বৃষ্টিপাতের ডেটা পরীক্ষা করে বন্যার পূর্বাভাস দেবে সরকারকে। সরকার সেই পূর্বাভাস মোবাইল ফোনের মাধ্যমে তার বন্যাপ্রবণ এলাকার জনগণকে দিয়ে সতর্ক করবে।

বন্যার ক্ষয়ক্ষতি কমাতে জাক্সা বৃষ্টিপাতের উপাত্ত তার নিজস্ব স্যাটেলাইট ‘হিওয়ারি’ এবং অন্যান্য স্যাটেলাইট থেকে সংগ্রহ করবে। জাপানের একটি প্রতিষ্ঠান এই কম্পিউটারাইজড সিস্টেম ডেভেলপ করবে যে সিস্টেম বন্যা ও বৃষ্টিপাতের উপাত্ত বিশ্লেষণ করবে।






মন্তব্য চালু নেই