মেইন ম্যেনু

মোদির সাক্ষাৎ পাচ্ছেন খালেদা

বাংলাদেশে সফরকালে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার সঙ্গেও বৈঠক করবেন। মোদির সফরের শেষ দিন ৭ জুন এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হতে পারে বলে জানা গেছে। ইতোমধ্যে নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে বৈঠকে কী কী বিষয় তুলে ধরা হবে তা চূড়ান্ত করতে কাজ করছে বিএনপি হাইকমান্ড।

মোদি-খালেদা বৈঠকের মাধ্যমে ভারতের ক্ষমতাসীন বিজেপির সঙ্গে বিএনপির সম্পর্ক ঝালাই হবে বলে মনে করেন বিশ্লেষকরা।

রাষ্ট্রীয় প্রটোকলে না পড়লেও খালেদা জিয়ার সাথে সাক্ষাৎ করবেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী। মোদি বাংলাদেশ সফরে একটি পজেটিভ মেসেজ দিতে চান, যাতে বাংলাদেশের মানুষ ভারত সম্পর্কে ‘পজেটিভ’ ধারণা পায়। জনগণের সাথে জনগণের সম্পর্ক স্থাপন এবং সব দলের সঙ্গে সুসম্পর্কের ওপর গুরুত্ব দিতে চান তিনি। এসব দিক বিবেচনায় খালেদা জিয়ার সাথেও তার বৈঠক হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

এ বিষয়ে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য লে. জে. (অব.) মাহবুবুর রহমান গণমাধ্যমকে বলেন, খালেদা জিয়া দেশের কয়েকবারের নির্বাচিত প্রধানমন্ত্রী। রাষ্ট্রীয় প্রটোকল না থাকলেও দেশে-বিদেশে বিএনপিকেই কার্যকর বিরোধী দল হিসেবে সবাই মনে করে। ভারতের বর্তমান সরকারের শীর্ষপর্যায়ও বিষয়টি অবগত আছেন। সেদিক বিবেচনায় ভারতের প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার সাথে সাক্ষাতের সময় দেবেন বলে আমরা বিশ্বাস করি।

আগামী ৬ জুন দুই দিনের সফরে বাংলাদেশে আসছেন নরেন্দ্র মোদি। সফরকালে তিনি বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক নিয়ে বক্তৃতা দেবেন। এ ছাড়া তিনি মুক্তিযুদ্ধে অসামান্য অবদানের জন্য ভারতের ক্ষমতাসীন বিজেপির নেতা ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী অটল বিহারি বাজপেয়িকে বাংলাদেশের পক্ষ থেকে দেয়া স্বাধীনতা সম্মাননা গ্রহণ করবেন। এর বাইরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে তার বৈঠক রয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই