মেইন ম্যেনু

মাদকসেবী অ্যাঞ্জেলিনা জোলি

বিখ্যাত হলিউড অভিনেত্রী অ্যাঞ্জেলিনা জোলি আদতে ছিলেন একজন মাদকসেবী। পাঠক হয়তো ভাবছেন কোনো এক চলচ্চিত্রে জোলি মাদকসেবীর ভূমিকায় অভিয়ন করেছেন আর সেই খবর আপনাদের জানানো হচ্ছে। যদি তাই ভেবে থাকেন তাহলে জানবেন আপনি ভুল ভাবছেন। ১৯৯০ সালের দিকে যখন হলিউডের ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে অ্যাঞ্জেলিনা জোলির কোনো উপস্থিতিই ছিল না তখন মাদকের অন্ধকার জগতে চলাচল ছিল জোলির। তখনই প্রায়শ মাদক সেবন করতেন তিনি।

সম্প্রতি ফ্রাঙ্কলিন মেয়ার নামের এক সাজাপ্রাপ্ত মাদক ব্যবসায়ী মাদকাসক্ত জোলির কিছু ছবি এবং ভিডিও ফুটেজ প্রকাশ করেছেন। ১৬ মিনিটির ওই ভিডিও ফুটেজে অ্যাঞ্জেলিনা জোলির চেহারায় স্পষ্ট ক্লান্তির ছাপ দেখা যায়।

অবশ্য অভিনয়ে পারদর্শী এই গুনী শিল্পী নিজের ওই খারাপ সময়ের কথা কখনও গণমাধ্যমের সামনে লুকাননি। বরাবরই তিনি তার অতীতকে ‘অন্ধকার’ ও ‘বিপজ্জনক’ বলে আখ্যা দিয়েছেন। পাশাপাশি তিনি যে ভয়াবহ সেই দিনগুলোর থাবা থেকে বেঁচে গেছেন তাই নিজেকে ধন্যবাদও দেন।

মেয়ার জানান, ‘অ্যাঞ্জেলিনা টানা কয়েক বছর আমার মক্কেল ছিল। আমি তার কাছে হেরোইন এবেং কোকেন বিক্রি করেছিলাম। একদিন সে আমাকে ফোন করলো এবং তার বাসায় কিছু মাদক নিয়ে যেতে বললো। সেসময় আমি একটা ভিডিও ক্যামেরা নিয়ে যাই এবং সিদ্ধান্ত নেই ভিডিও করার। আমি তার বাসায় পৌছালাম এবং তাকে মাদক হস্তান্তর করলাম এবং তিনি আমাকে টাকা দিলেন।’

মেয়ার যখন জোলির বাসায় মাদক দিতে যান তখন জোলি ফোনে কারও সঙ্গে কথা বলছিলেন। আর সেই সুযোগে প্রায় ১৬ মিনিটখানেক সময় ভিডিও করেন মেয়ার। সেই ভিডিওতে দেখা যায় জোলি কারও সঙ্গে কোনো সম্পর্ক নিয়ে আলাপ করছিলেন।






মন্তব্য চালু নেই