মেইন ম্যেনু

‘মমতা ব্যানার্জীর বাড়ির নীচে কালো টাকা, হানা দেবে সিবিআই’

মোদি সরকারের নোট বাতিলের সিদ্ধান্ত নিয়ে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে রাজনীতি। পশ্চিমবঙ্গ রাজনীতি হোক কিম্বা দিল্লির রাজনীতি, শাসক দলের বিরুদ্ধে সুর চড়াতে শুরু করেছে বিরোধী দলগুলি। আর সেই সঙ্গে চলছে পশ্চিমবঙ্গে কুকথার বন্যা।

কেউ বলছেন, ‘মুখ্যমন্ত্রীর সাদা শাড়ির মধ্যে কালো টাকা লুকোনো রয়েছে।’ আবার কেউ বলছেন, ‘কেন্দ্রে বোবা কালার সরকার চলছে।’ সব কিছু মিলিয়ে রাজনীতিতে যেন কুকথা বলার প্রতিযোগিতা চলছে। সেই ট্র্যাডিশন বজায় রেখে বালুরঘাটের পর মালদা থেকে ফের পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে সুর চড়ালেন রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

বিজেপির রাজ্য সভাপতির দাবি, ‘মুখ্যমন্ত্রীর কালীঘাটের বাড়ির নীচে কালো টাকা আর সোনা লুকোনো রয়েছে’। শুধু তাই নয়, সিবিআই হানা দিলে, সব কালো টাকা আর সোনা উঠে আসবে বলেও আক্রমণ করেন তিনি।

আর তারপরই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির প্রসঙ্গ তুলে দিলীপ ঘোষ বলেন, কেন্দ্রে যিনি বসে রয়েছেন, তার কাছে কোনও কিছুই অসম্ভব নয়। প্রয়োজন পড়লে মমতা ব্যানার্জীর কালীঘাটের বাড়িতেও হানা দিতে পারে সিবিআই। পাশপাশি তিনি আরও বলেন, মুখ্যমন্ত্রীর শাড়িই শুধু সাদা রয়েছে। বাদবাকি অর্থাত, পরিবার থেকে দল, সবই কালো হয়ে গিয়েছে।

দিলীপ ঘোষ কারও পরোয়া করেন না বলেও দাবি করেছেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি। অভিযোগ করেন, ‘মুখ্যমন্ত্রীর মন্ত্রী বলছেন, আমার হাত-পা ভেঙে দেবেন। এটা কোথাকার শালীনতা? নিজে পারছেন না। নিজেরা পারছে না, মসজিদের ইমানকে লাগিয়ে দিয়েছে আমাদের পিছনে।’






মন্তব্য চালু নেই