মেইন ম্যেনু

‘ভালোবাসার চুম্বনে’ পুলিশের বাধা

বুধবার ভারতের কেরালার একটি কফি হাউস ভাঙচুর ও এ সময় তরুণীকে হেনস্তা করে দেশটির হিন্দুবাদী এক গ্রুপ। এ হামলার বিরুদ্ধে ব্যতিক্রমধর্মী প্রতিবাদের আয়োজন পরিকল্পনা করেছেন দেশটির কেরালা রাজ্যের প্রেমিকযুগলরা।

জনসমক্ষে খোলা আকাশের নিচে ঠোঁটে ঠোঁট রেখে চুম্বনের মাধ্যমে এর প্রতিবাদ করবেন যুগলরা। আয়োজকরা এ প্রতিবাদের নাম দিয়েছেন ‘কিস অব লাভ’ বা ভালোবাসার চুম্বন।
প্রতিবাদকারীদের অভিযোগ, ওই গ্রুপটি তাদের ডেটিংয়ের স্থান ধ্বংস করেছে। তাই তাদের শাস্তির দাবিতে রোববার সকাল থেকে কোচি শহরের মেরিন ড্রাইভে জড়ো হবেন যুগলরা। এরপর একে অন্যকে চুম্বন ও আলিঙ্গন করবে জনসমক্ষে।

কিন্তু রাজ্য পুলিশ জানিয়েছে, তাদের এটা করতে দেওয়া হবে না। কোচি পুলিশ কমিশনার কে জি জেমস বিবিসিকে বলেন, ‘তাদের প্রতিবাদ সমাবেশের অনুমতির বিষয়টি এখনো আমাদের হাতে এসে পৌঁছায়নি। কিন্তু আমি তাদের বলেছি, জনসমক্ষে চুম্বন করা যাবে না। এটি দেশের আইন ও শৃঙ্খলার সঙ্গে সাংঘর্ষিক। আমরা এটি অনুমিত দিতে পারি না।’

কিন্তু এ সত্ত্বেও প্রতিবাদী যুগলরা শহরটিতে অনানুষ্ঠানিকভাবে জড়ো হতে শুরু করেছে। তারা মনে করছে, কমপক্ষে ২৫০ প্রেমিকযুগল সেখানে হাজির হতে পারেন। আলিঙ্গন ও চুম্বন তাদের অধিকার বলেও দাবি করেন তারা।

এ ব্যাপারে ফেসবুকে একটি পেজ খোলা হয়েছে। ইতিমধ্যে ১৮ হাজার লোক তাদের সমর্থনও জানিয়েছেন। তবে কেরালার হিন্দু ও মুসলিম উভয়ই এ কাজের তীব্র বিরোধিতা করেছে।






মন্তব্য চালু নেই