মেইন ম্যেনু

বোমা ফাটালেন ধোনি

মেঘ না চাইতেই জল! বলা নেই কওয়া নেই, সিরিজের মাঝপথেই টেস্ট ক্রিকেট থেকে বিদায়? দলকে বিপর্যয়ের মুখে রেখে মহেন্দ্র সিং ধোনির এমন বিদায় সত্যিই ভক্তকুলকে ব্যথিত করেছে।

টেস্টে ১ ম্যাচ হাতে থাকতেই অস্ট্রেলিয়ার কাছে সিরিজ হেরে গেছে ভারত। বাকি ম্যাচটি অস্ট্রেলিয়ার জন্য আনুষ্ঠানিকতাই বটে। টেস্ট ক্রিকেট থেকে বিদায় নেওয়ার পরপরই বোমা ফাটালেন ভারতের সফল অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি!

বিদেশের মাটিতে একের পর এক ম্যাচে হেরেই চলেছে ভারত। মাঝে দুই একটি ম্যাচ ড্র করলেই হয়। ভিন দেশে এটাই এখন তাদের সাফল্যের ঝুলি! তবে কেন বার বার বিদেশের মাটিতে ভারতের পদস্খলন হচ্ছে? এ সব নিয়ে মুখ খুললেন ধোনি। জানালেন, এমন পরিস্থিতির জন্য আমরা নিজেরাই দায়ী।

এক বিবৃতিতে ভারতের সদ্য বিদায়ী টেস্ট অধিনায়ক বলেন, ‘আমরা নিজেরাই নিজেদের সমস্যার মধ্যে ফেলেছি।‌ তিনটি টেস্ট ম্যাচেই ভালো পার্টনারশিপ হতে হতেই হঠাৎ করে দ্রুত বেশ কয়েকটি উইকেট বিলিয়ে দিয়ে এসেছি। নিজেদের ওপর চাপ বাড়িয়ে নিয়েছি। এভাবে খেললে টেস্টে ভালো করা সম্ভব নয়।‌’

মেলবোর্ন টেস্টের শেষদিনে বিতর্কে জড়িয়ে আবারও আলোচনায় আসেন বিরাট কোহলি।‌ ভারতীয় ইনিংসের পঞ্চম ওভারে কোহলি রানআউটের হাত থেকে বেঁচে যান।‌ এরপর ব্র্যাড হাডিন কোহলির দিকে হাততালি দিতে দিতে এগিয়ে যান।‌ কোহলিও পাল্টা কিছু বলতে বলতে আম্পায়ারের দিকে এগিয়ে যান।‌

ভারতের পোস্টার বয়ের বারবার বিতর্কে জড়িয়ে পড়া নিয়ে ধোনি বলেন, ‘মাঠে ওদের দুজনের মধ্যে কী কথাবার্তা হয়েছিল, আমি সঠিক জানি না।‌ উত্তেজনার মুহূর্তে কেউ নিজেকে ঠিক রাখতে পারে না।‌ অধিনায়ক হিসেবে আমি আম্পায়ারকে বলেছিলাম, মাঠে কিছু ঘটলে আমাকে জানাতে।‌ আমি আমার সতীর্থকে বলতে পারি, মাঠে এই ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটাতে।’

বিদেশের মাটিতে এই নিয়ে টানা ৬টি টেস্ট সিরিজে হারতে হলো ধোনিকে। এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘এই টেস্ট শুরুর আগে আমরা জানতাম, সিরিজ জিততে পারব না!‌ তবে এই টেস্টটা জিততে চেয়েছিলাম ।‌ কিন্তু যখন আমরা ব্যাট করতে নেমেছিলাম, জেতাটা খুবই কঠিন ছিল।‌ তাই চেয়েছিলাম টেস্টটা ড্র হোক।‌ শুরুতে বিপর্যয়ের মুখে পড়েও এই ড্র করাটা আমাদের বড় পাওয়া!’






মন্তব্য চালু নেই