মেইন ম্যেনু

বিস্ফোরণে নাড়িভুঁড়ি বেরিয়ে যায় আত্মঘাতী নারীর

রাজধানীর দক্ষিণখান আশকোনায় হাজিক্যাম্পের কাছে একটি জঙ্গি আস্তানায় নিজের শরীরে থাকা গ্রেনেডের বিস্ফোরণে যে অজ্ঞাত নারী (৩৫) নিহত হয়েছেন তার নাড়িভুঁড়ি বেরিয়ে গেছে বলে সুরতহাল প্রতিবেদনে জানা গেছে।

দক্ষিণখান থানা পুলিশের সুরতহাল প্রতিবেদনে এ তথ্য লেখা হয়। শনিবার বিকেলে এসঅাই নান্নু খান প্রতিবেদনটি তৈরি করেন। ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল মর্গে মরদেহ ময়নাতদন্তের প্রস্তুতি চলছে।

ঢামেকের ফরেনসিক মেডিসিন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ডা. সোহেল মাহমুদ মরদেহ ময়নাতদন্ত করবেন।

উল্লেখ্য, শনিবার মধ্যরাত থেকে দক্ষিণখানের আশকোনার পূর্বপাড়ার ৫০নং বাসাটি জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে ঘিরে রাখে পুলিশ। পরে সকালের দিকে আত্মসমর্পণের কথা বলা হলে দুই শিশুকে নিয়ে ওই বাসাটি থেকে দুই নারী বেরিয়ে আসেন। এদের মধ্যে একজন সেনাবাহিনী থেকে বহিষ্কৃত মেজর জাহিদের স্ত্রী। অন্যজন পলাতক জঙ্গিনেতা মুসার স্ত্রী বলে জানিয়েছে পুলিশ।

পরে আবারো আত্মসমর্পণের কথা বলা হলে এক নারী শিশুসহ বেরিয়ে এসে নিজের শরীরে থাকা গ্রেনেডের বিস্ফোরণ ঘটান। এতে ওই শিশুও আহত হয়। আশকোনার ঘটনায় মোট দুইজন নিহত হন।






মন্তব্য চালু নেই