মেইন ম্যেনু

বিশ্বে দরিদ্র্ দেশের তালিকার শীর্ষে ভারত

বিশ্বে চরম দরিদ্র জনগোষ্ঠীর দেশ হিসাবে তালিকার শীর্ষে উঠে এসেছে ভারত। জাতিসংঘের নতুন এক প্রতিবেদনে একথা বলা হয়েছে।

এতে বলা হয়, দক্ষিণপূর্ব এশিয়ায় সার্বিকভাবে দারিদ্র্যের হার কিছুটা কমলেও এ অঞ্চলের বড় অর্থনীতির দেশ ভারতে সবচেয়ে বেশি সংখ্যক অতি দরিদ্র মানুষ বাস করছে।

দক্ষিণপূর্ব এশিয়ায় ১৯৯০ সালে দারিদ্র্যের হার ছিল ৪৫ শতাংশ। ২০১০ সালে তা কমে ১৪ শতাংশে নেমেছে। কিন্তু বিশ্বের অন্যান্য দেশের তুলনায় অতি দরিদ্র্য মানুষের সংখ্যা ভারতেই সবচেয়ে বেশি।

বুধবার নয়া দিল্লিতে প্রকাশিত এ বছরের ‘মিলেনিয়াম ডেভেলপমেন্ট গোলস’ (এমডিজি)সংক্রান্ত ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, বিশ্বে দরিদ্র জনগোষ্ঠীর ৩২ দশমিক ৯ শতাংশই ভারতের। এ হার চীন, নাইজেরিয়া এবং বাংলাদেশের মতো দেশগুলোর চেয়ে বেশি।

ভারতে শিশু মৃত্যুর হারও বিশ্বের অন্যান্য দেশের তুলনায় বেশি বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়। ২০১২ সালে ১৪ লাখ শিশু পাঁচবছর হওয়ার আগেই মারা গেছে বলে জানায় জাতিসংঘ।

ওই বছর বিশ্বে ৬৬ লাখ শিশুর অকাল মৃত্যু (পাঁচ বছরের কম বয়সে) হয়। এর মধ্যে দক্ষিণ এশিয়ায় মারা যায় ২১ লাখ শিশু।

ক্ষুধা, দারিদ্র্য, স্বাস্থ্য, লিঙ্গ সমতা, সার্বজনীন শিক্ষা ও পরিবেশগত সূচকগুলো দিয়ে শতাব্দীর উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা বা এমডিজি’র মূল্যয়ন করা হয়ে থাকে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, দক্ষিণ এশিয়ায় এ লক্ষ্যমাত্রা বাস্তবায়নে ব্যাপক সাফল্য লক্ষ্য করা গেছে। তবে ২০১৫ সালের মধ্যে এ পরিকল্পনাগুলো বাস্তবায়ন করতে আরো বিস্তৃত উদ্যোগ নেয়া প্রয়োজন।






মন্তব্য চালু নেই