মেইন ম্যেনু

বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত ১৫৩ এমপির বৈধতা প্রশ্নে রিট খারিজ হাইকোর্টে

আওয়ার নিউজ : : বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় সংসদ সদস্য নির্বাচিত ঘোষণা সংক্রান্ত গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশের (আরপিও) ১৯ ধারার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে দায়ের করা রিট আবেদন খারিজ করে দিয়েছেন হাইকোর্ট।

বৃহস্পতিবার বিচারপতি মির্জা হোসেইন হায়দার ও বিচারপতি মুহাম্মদ খুরশীদ আলম সরকার সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এই রায় দেন।

একই সঙ্গে গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশে ‘না ভোটের বিধান’ সংযোজনের নির্দেশনা চেয়ে করা অপর রিটটিও আদালত খারিজ করে দেন।

আদালত বলেছেন, বিনা বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত ১৫৩ সংসদ সদস্যের পদ বৈধ।এটি সংবিধানের সঙ্গে সাংঘর্ষিক নয়। এবং না ভোটের বিষয়ে সিদ্ধান্ত দেবে পার্লামেন্ট।

রিটকারীর আইনজীবী রেদওয়ান আহমেদ রানজীদ এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

প্রসঙ্গত, জাতীয় পার্টির (জাপা) ভাইস চেয়ারম্যান খন্দকার আবদুস সালামের করা রিট আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে গত ১৬ ফেব্রুয়ারি হাইকোর্ট আরপিওর ১৯ ধারা কেন সংবিধানের (৭, ১১, ২৭, ৩১, ৬৫(২), ১২১ এবং ১১২(১) অনুচ্ছেদের পরিপন্থী ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেন।

এছাড়া আরপিওতে ‘না’ ভোটের বিধান অন্তর্ভুক্তির ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় সংশোধনী আনতে সরকারকে কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না এ মর্মে গত ২৪ নভেম্বর রুল জারি করেন হাইকোর্ট।

সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মো. শাহরিয়ার মজিদ ও রোকনউদ্দিন মো. ফারুকের করা রিট আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে হাইকোর্ট এ রুল জারি করেন।






মন্তব্য চালু নেই