মেইন ম্যেনু

বিটিভিতে কর্মরত জামায়াতপন্থীদের তালিকা প্রকাশের নির্দেশ

বাংলাদেশ টেলিভিশনের বিভিন্ন অনুষ্ঠানে কর্মরত জামায়াত ও হেফাজতপন্থীদের তালিকা করার নির্দেশ দিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু।

বেসরকারি টিভি চ্যানেলের ইসলামী অনুষ্ঠানের উপস্থাপক মাওলানা নুরুল ইসলাম ফারুকীর খুনীদের গ্রেপ্তারের দাবিসহ ১০ দফা দাবিতে ঢাকাস্থ নারিন্দার মুশুরীখোলার দরবার শরীফের পীর শাহ মোহাম্মদ আহসানুজ্জামানের নেতৃত্বে দশ সদস্যের একটি প্রতিনিধিদল বুধবার দুপুরে সচিবালয়ে সাক্ষাৎ করতে গেলে মন্ত্রী একথা বলেন। বৈঠকে উপস্থিত একটি সূত্র এ তথ্য জানিয়েছেন।

প্রতিনিধি দলের সদস্য ও আহলে সুন্নাত ওয়াল জামায়াতের নির্বাহী মহাসচিব আ ন ম মাসউদ হোসাইন আল কাদেরী জানান, ‘ফারুকী হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় এ পর্যন্ত কাউকে গ্রেপ্তার না করার বিষয়টি জানাতে আমরা মন্ত্রীর কাছে গিয়েছিলাম। বিটিভিতে জামায়াত-হেফাজতের ছদ্মবেশ নিয়ে যারা অনুষ্ঠান করছেন তাদের ব্যাপারেও মন্ত্রীকে অবহিত করা হয়েছে।’

তথ্যমন্ত্রী আপনাদের কি বলেছেন? জানতে চাইলে মাসউদ হোসাইন বলেন, ‘মন্ত্রী বলেছেন জামায়াত-হেফাজতপন্থীরা শুধু বিটিভিতে নয়, অনেক টিভিতে আছে। সবার বিষয়েই খোজঁ খবরনেওয়া হবে।’

বৈঠকে উপস্থিত আরেকটি সূত্র জানিয়েছেন, বিটিভিতে সপ্তাহে একাধিক ধর্মীয় অনুষ্ঠান প্রচারিত হয়। সেসব অনুষ্ঠানে পরিচিত হেফাজত-জামায়াতপন্থীরা বাদ গেলেও তাদের অনুসারীরা অনুষ্ঠান করছেন। তাদের বিষয়ে আমরা মন্ত্রীকে জানিয়েছি।এর প্রেক্ষিতেই মন্ত্রী বিটিভিতে থাকা জামায়াত ও হেফাজত সংশ্লিষ্টদের তালিকা করে জমা দেওয়ার কথা বলেছেন। তালিকা হাতে পাওয়ার পর তিনি বিটিভির মহাপরিচালককে বিষয়টি অবহিত করবেন। যাতে জামায়াত-হেফাজতপন্থী কেউ বিটিভিতে ছদ্মবেশে অনুষ্ঠান পরিচালনা করতে না পারেন।

বৈঠককালে প্রতিনিধি দলের নেতৃত্বদানকারী পীর শাহ মোহাম্মদ আহসানুজ্জামান পবিত্র হজ পালনের জন্য তথ্যমন্ত্রীকে অভিনন্দন জানান। জবাবে তথ্যমন্ত্রী তার হজ পালনের বিবরণ দেন।

উল্লেখ্য,গত ২৭ আগস্ট বেসরকারি টেলিভিশনের ইসলামী অনুষ্ঠানের উপস্থাপক মাওলানা নুরুল ইসলাম ফারুকীকে রাজধানীর পূর্ব রাজা বাজারের নিজবাসায় গলা কেটে নৃশংসভাবে হত্যা করা হয়।






মন্তব্য চালু নেই