মেইন ম্যেনু

বিকিনি ছেড়ে বোরকা : পুলিশের মোস্ট ওয়ান্টেড !

সমুদ্র সৈকতে বিকিনি পড়ে যে নারী হরহামেশাই ছবি তুলেছিলেন কিছুদিন পরই যেন তার মধ্যে ঘটে গেলো আমূল পরিবর্তন। এবার তাকে দেখা গেলো কালো বোরকা পরা অবস্থায়। শুধু বোরকা পরেই ক্ষ্যান্ত হননি তিনি। অস্ত্র হাতে নিয়েছেন জিহাদি প্রশিক্ষণ।
বর্তমানে ফরাসি পুলিশের মোস্ট ওয়ান্টেড নারী অপরাধীদের তালিকায় তার নাম রয়েছে সবার উপরে। তিনি আলজেরীয় বংশোদ্ভূত হায়াত বৌমিদিন (২৬)।

হায়াতের বিষয়টি অবশ্য নতুন করে সবার নজরে আসে শুক্রবার প্যারিসের কোসের বেকারি নামে একটি মলে ঢুকে তার স্বামী অ্যামেডির তাণ্ডবের পর। শুক্রবার অ্যামেডি ওই বেকারিটিতে ঢুকে এক নারী পুলিশ সদস্যসহ গুলি করে হত্যা করেন ৪ পণবন্দিকে। একইদিন পুলিশ ওই বেকারিটিতে অভিযান চালিয়ে অ্যামিডিকেও হত্যা করে।

অ্যামেডিকে হত্যা করার পর পুলিশ এখন খুঁজে বেড়াচ্ছে তার স্ত্রী হায়াতকে। ফরাসি পুলিশ বলছে, বৃহস্পতিবার অ্যামেডির জিম্মি কর্মকাণ্ডের বিপুল পরিমাণ বিস্ফোরক ও আগ্নেয়াস্ত্রসহ গা ঢাকা দিয়েছেন হায়াত। যে কোনও সময় তিনিও স্বামীর মতো কোথাও হামলা চালাতে পারেন বলে সাবধান করা হয়েছে।

এর আগে একবার সশস্ত্র ডাকাতির ঘটনায় ধরা পড়ে চার বছরের জন্য জেলে গিয়েছিলেন অ্যামেডি। অ্যামেডি জেল থেকে ছাড়া পাওয়ার পর তারা বিয়ে করেন। তবে এটা নিশ্চিত যে জেল থেকে অ্যামেডি ফিরে আসার পরই তিনি কট্টর জিহাদি মন্ত্রে স্ত্রী হায়াতকে দিক্ষীত করেন।






মন্তব্য চালু নেই