মেইন ম্যেনু

বাস কেড়ে নিল ৩ নৃত্যশিল্পীর প্রাণ

বগুড়া শহরতলীর বাঘোপাড়া এলাকায় উত্তরবঙ্গ মহাসড়কে বিআরটিসির বাসের ধাক্কায় সিএনজিচালিত অটোরিকশার যাত্রী তিন নৃত্যশিল্পীসহ ৪ জন নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার সন্ধ্যার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এতে আহত একজনকে টিএমএসএস মেডিকেল কলেজ ও রফাতুল্লাহ কমিউনিটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

নিহতরা হলেন, বগুড়া শহরের ফুলবাড়ি দক্ষিণপাড়ার আবদুল আলিমের ছেলে আশিক (২০), সদরের বড় ধাওয়াকোলা গ্রামের পরিমলের ছেলে তপু (২২), মহাস্থানের ঝিনুকের ছেলে আবদুর রহিম (১৭) ও সিএনজি চালক আবদুল গফুর (৩০)। হতাহতরা অটোরিকশায় শেরপুরের একটি সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে যাচ্ছিলেন।

সদর থানার এসআই শাহজাহান আলী জানান, মহাস্থান ছেড়ে আসা বগুড়া শহরগামী একটি সিএনজিচালিত অটোরিকশা মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে শহরতলীর বাঘোপাড়া এলাকায় চলাচল পাম্পের সামনে পৌঁছলে রংপুরগামী বিআরটিসির একটি বাস সেটিকে ধাক্কা দিয়ে পালিয়ে যায়।

এতে সিএনজিটি দুমড়ে-মুচড়ে ঘটনাস্থলেই নৃত্যশিল্পী আশিক, আবদুর রহিম ও তপু মারা যান। চালক আবদুল গফুরসহ দু’জন আহত হন। তাদের মধ্যে চালক পরে মারা যান। নিহত তপুর পরিবারের সদস্যরা জানান, হতাহতদের ৫ জন নাচ-গান করতেন। বগুড়ার মহাস্থান থেকে অটোরিকশা রিজার্ভ করে শেরপুরে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে যাচ্ছিল তারা।






মন্তব্য চালু নেই