মেইন ম্যেনু

বাবা-ছেলে মিলে দুই বোনকে ধর্ষণ!

ভারতের আহমেদাবাদে স্বঘোষিত ধর্মগুরু আশারাম বাপু’র বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা দায়েরের পর এক সপ্তাহ ধরে রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ আছেন স্বামী ও ছেলে সন্তানসহ ৩৩ বছর বয়ষ্ক এক মহিলা।

আহমেদাবাদ পুলিশ এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

ভুক্তভোগী এই মহিলার ছোট বোনও ৭৬ বছর বয়ষ্ক এই ধর্মগুরুর ছেলে নয়ারাম সাইয়ের বিরুদ্ধে ধর্ষনের মামলা দায়ের করেছেন। মামলার আরজিতে তিনি উল্লেখ করেছেন, ২০০২ থেকে ২০০৫ সাল পর্যন্ত তিনি যখন সুরাট আশ্রমে ছিলেন তখন নয়ারাম তাকে অনেকবার ধর্ষণ করেন।

ধর্ষণের শিকা্র বড় বোনের ব্যপারে সুরাটের কামরেজ পুলিশ ষ্টেশনের সাব-ইনস্পেক্টর এন এম আহির বলেন, ধর্ষণের শিকার এই নারী এক সপ্তাহের বেশি সময় ধরেই স্বামী সন্তানসহ নিখোঁজ আছেন।

এই পুলিশ কর্মকর্তা বলছেন, এই ভুক্তভোগীর নিরাপত্তার জন্য আমার ৪ জন পুলিশ সদস্যকে নিয়োগ দিয়েছিলাম। গত ১৪ ডিসেম্বর তিনি পুলিশ ষ্টেশনে জানিয়েছেন তারা শহরের অন্য জায়গায় এক বিয়ের অনুষ্ঠানে যাচ্ছেন কিন্তু তাদের পুলিশ প্রোটেকশনের কোনো দরকার নেই। পরে ওই চার পুলিশকে তার বাড়ির সামনে মোতায়েন করা হয়। কিন্তু তারা আর সে বাড়িতে ফেরেনি। শেষমেশ, গত ১৮ ডিসেম্বর পুলিশ একটি নিখোঁজ মামলা নথিভুক্ত করে।

পরে পুলিশ জানতে পারে ওইদিন তিনি কোনো বিয়ের অনুষ্ঠানে যাননি বলে নিশ্চিত হয়েছেন। তার মোবাইল ফোনও বন্ধ থাকায় অবস্থান নিশ্চিত হতে পারছেনা পুলিশ।






মন্তব্য চালু নেই