মেইন ম্যেনু

বাবাকে পান খাইয়ে শিশুকন্যাকে ধর্ষণ

সোমবার দুপুরে নরসিংদীর পলাশ উপজেলার ঘোড়াশাল রেলস্টেশনে বাবাকে পান খাইয়ে অজ্ঞান করে ৬ বছরের এক মেয়েকে ধর্ষণ করেছে রফিক নামের এক পান দোকানি।

শিশুটির চিৎকারে শুনে স্থানীয় লোকজন অভিযুক্ত পান দোকানিকে আটক করে ভৈরব রেলওয়ে পুলিশের কাছে সোপর্দ করেছে।পরে ধর্ষণের শিকার শিশুটিকে পুলিশ হেফাজতে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

স্থানীয় লোকজন জানান, বিক্রমপুর জেলার বালুচর গ্রামের নজরুল ইসলাম তার অসুস্থ স্ত্রীর অপারেশনের জন্য মানুষের নিকট থেকে সহযোগিতা চাইতে মেয়েকে সঙ্গে নিয়ে রাস্তায় নামেন।

সোমবার বেলা ১১টার দিকে ওই ব্যক্তি তার ৬ বছরের মেয়েকে নিয়ে ট্রেনে ঘোড়াশাল রেলস্টেশনে এসে নামেন।

এ সময় স্টেশনের প্ল্যাট ফর্মের ওপর ভাসমান পান দোকানি ফরিদপুর জেলার নগরকান্দা উপজেলার বলরদী গ্রামের আ: বারিকের ছেলে মো. রফিকের (৩০) সাথে গল্প শুরু করেন তিনি।

এক পর্যায়ে পান দোকানি রফিক ওই ব্যক্তিকে পানে বেশি জর্দা দিয়ে পান খেতে দেন।পান খাওয়ার কিছুক্ষণের মধ্যেই লোকটি অজ্ঞান হয়ে গেলে রফিক মেয়েটিকে ফুঁসলিয়ে স্টেশনের নির্জনস্থানে নিয়ে ধর্ষণ করে।

পরে রক্তক্ষরণ হলে মেয়েটি কান্নাকাটি করলে স্থানীয় লোকজন ছুটে যান।

এ সময় স্থানীয় লোকজন অভিযুক্ত রফিককে আটক করে ভৈরব রেলওয়ে পুলিশে খবর দেয়।পরে পুলিশ এসে অভিযুক্ত রফিককে গ্রেপ্তার ও ধর্ষণের শিকার শিশুটিকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে নিয়ে যায়






মন্তব্য চালু নেই