মেইন ম্যেনু

ফুলবাড়ির (দিনাজপুর) কিছু টুকরো খবর

ফুলবাড়ীতে বন্ধুত্বের ৮৭ মিলনমেলা:
দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে ১৯৮৭ সালের এসএসসি সালের পরীক্ষার্থী প্রাক্তন শিক্ষার্থী সহপাঠিসহ তাদের স্বামী-স্ত্রীসহ সন্তানদের অংশগ্রহণে মিলনমেলা গত মঙ্গলবার বিকেলে স্থানীয় সড়ক ও জনপথ ডাকবাংলো চত্বরে অনুষ্ঠিত হয়েছে।
সহপাঠি বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মাহমুদ আলম লিটনের সভাপতিত্বে আয়োজিত স্মৃতি চারণ অনুষ্ঠানে শিক্ষা জীবনের বিভিন্ন দিক তুলে ধরে স্মৃতি চারণ করেন রাজনীতিকর্মী এসএম নূরুজ্জামান জামান, এড. মহিউদ্দিন কাদের, জেঞ্জির ওয়ালীদ, যুবনেতা খাজা মঈনুদ্দিন, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মঞ্জুরুল কাদির বাবু, খাদ্য কর্মকর্তা মাহমুদ হাসান পলাশ, প্রভাষক তৃপ্তি রাণী সাহা, প্রভাষক কল্পনা রাণী, খন্দকার দ্বীপ মহাম্মদ, আব্দুল লতিফ, শাহনাজ ডেইজি, শহীদুল ইসলাম প্রমূখ।
পরে র্যাফেল ড্র, কুইজ প্রতিযোগিতাসহ এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এতে স্থানীয় ও বহিরাগত শিল্পীরা সঙ্গীত ও নৃত্য পরিবেশন করেন।
উল্লেখ্য, বন্ধুত্বের ৮৭ নামের মিলনমেলায় যোগ দিয়ে প্রাক্তন বন্ধু-বান্ধবীদের সাথে মিলনমেলায় অংশ নিতে দেশ-বিদেশ থেকে সহপাঠিরা তাদের পরিবার পরিজন নিয়ে অংশ নেন।

কোরবানীর চামড়ার বাজারে ধস:
ফুলবাড়ীতে কোরবানীর পশুর চামড়ার বাজারে ধস নেমেছে। চোরা কারবারীরা বেশি দামে চামড়া খরিদ করায় সরকারী নিদ্ধারীত মূল্য চামড়া কিনতে পারেনি চামড়া ব্যাবসায়ীরা।
চামড়ার বাজার ঘুরে দেখা যায় প্রতি বর্গফুট চামড়া ৭০ থেকে ৮০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে যা গত এক মাসের ব্যাবধানের তুলুনায় কোরবানীর পশুর চামড়ার মূল্য প্রতি বর্গফুটে ১০ হতে ২০ টাকা কম। এ কারণে চামড়া কিনতে দিধা দন্দে ভুগতেছিল চামড়া ব্যাবসায়ীরা, আর এই সুযোগে চামড়ার মৌসুমী ব্যাবসায়ীরা সরকারের নিদ্ধারীত মূল্যের বেশি দামে চামড়া কেনায় আশানুরুপ চামড়া কিনতে পারেনি চামড়া ব্যাবসায়ীরা। কয়েক জন চামড়া ব্যাবসায়ীরা জানায় পার্শবর্তী রাষ্ট্র ভারতে তুলুনামুলক চামড়ার দাম বেশি হওয়ায় চোরা কারবারীরা চামড়ার মৌসুমী ব্যাবসায়ীদের মাধ্যমে বাজার দরের বেশি দামে চামড়া কিনেছে, ওই চামড়া গুলি সবেই চোরা পথে ভারতে পাচার করা হবে বলে তারা দাবী করেন। এজন্য তারা চামড়া পাচার রোধ করতে প্রসাশনের ব্যার্থতাকেই দায়ী করেছেন।

সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলামের মা নুরুন্নাহার বেওয়ার ইন্তেকাল:
ফুলবাড়ী উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান কৃষক নেতা আমিনুল ইসলাম বাবলু ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী নবিউল ইসলামের মা নুরুন নেহা (৮৬) গত মঙ্গলবার ৭ অক্টোবর,২০১৪ দুপুরে বার্ধক্যজনিত রোগে আক্রান্ত হয়ে পৌর শহরের পশ্চিম গৌরীপাড়াস্থ নিজ বাড়িতে ইন্তেকাল করেছেন (ইন্না…….রাজেউন)।
মৃত্যুকালে তিনি তিন ছেলে ও দুই মেয়েসহ অসংখ্য নাতি-নাতনিসহ আত্মীয়-স্বজন গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। বুধবার সকাল ১০টায় স্থানীয় কানাহার ঈদগাহ মাঠে নামাযে জানাজা শেষে কানাহার কবরস্থানে তাঁকে দাফন করা হয়।
নুরুন নেহার মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করে শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন স্থানীয় সাংসদ প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রী এ্যাড. মোস্তাফিজুর রহমান ফিজার, ফুলবাড়ী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ খুরশিদ আলম মতি, পৌর মেয়র মুরতুজা সরকার মানিক, ফুলবাড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হায়দার আলী শাহ, সাধারণ সম্পাদক মুশফিকুর রহমান বাবুল, বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক মোস্তাক হোসেন চৌধুরী খোকন, সিপিবি’র সভাপতি জয় প্রকাশ গুপ্ত, ওয়ার্কার্স পার্টির শফিকুল ইসলাম শিকদার, ইউনাইটেড কমিউনিস্ট লীগের সঞ্জিত প্রসাদ জিতু, জাতীয় গণফ্রন্টের হাজী মঈনুদ্দিন, শহীদ স্মৃতি আদর্শ ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ জিল্লুর রহমান, উপাধ্যক্ষ শাহ মো. আব্দুল কুদ্দুস, থানা ব্যবসায়ী সমিতির সভপতি নওশাদ আলম মুন্না, ফুলবাড়ী প্রেসক্লাবের সভাপতি প্রভাষক অমর চাঁদ গুপ্ত অপু, সাধারণ সম্পাদক আনোয়ারুল ইসলাম বাবু, ফ্রেন্ডস্ গ্রুপ (একটি সামাজিক উন্নয়ন মূলক সংগঠন) এর প্রতিষ্ঠাতা ইঞ্জিনিয়ার মোস্তাফিজুর রহমান সুমন, ফুলবাড়ী শাখা তেল গ্যাস জাতীয় কমিটির আহবায়ক সৈয়দ সাইফুল ইসলাম জুয়েল, মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার লিয়াকত আলী, শিক্ষক সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক নাজিম উদ্দিন মন্ডল, বাংলাদেশ সাংবাদিক সমিতির সভাপতি প্রভাষক শেখ সাবীর আলী, সাধারণ সম্পাদক রনি গুপ্ত, ফুলবাড়ী সাংবাদিক পরিষদ (উফেসাপ) সভাপতি শাহীন বিশ্বাস, সাধারণ সম্পাদক রাকিব হাসান জনি, ফুলবাড়ী রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি প্রভাষক আজিজুল হক সরকার ও সাধারণ সম্পাদক আশরাফ পারভেজ, ফুলবাড়ী শাখা বাংলাদেশ মানবাধিকার সাংবাদিক ফোরামের আহবায়ক প্রভাষিকা রীতা গুপ্তা, সদস্য সচিব মাহামুদুল হাসান রুবেল।

ট্রেন থেকে নামতে গিয়ে আহত ২০:
ফুলবাড়ী রেলস্টেশনে গতকাল বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় তাড়াহুড়া করে ট্রেন থেকে নামতে গিয়ে নারী-পুরুষ, শিশুসহ ২০জন আহত হয়েছে এবং নামতে পারেননি শতাধিক যাত্রী।
পরবর্তীতে ঐসব যাত্রীকে বাস ও ফিরতি ট্রেনে ফিরতে হয়েছে ফুলবাড়ীতে। এদের মধ্যে ফুলবাড়ী পৌর এলাকার কাঁটাবাড়ি গ্রামের আলী আকবরের ছেলে রাহাত হোসেন ছোটন (২৩), পার্বতীপুরের মধ্যপাড়া পাঁচপুকুর গ্রামের রাফায়েল খুজুরের স্ত্রী শান্তি খুজুর (৪৭) ও আমবাড়ির আব্দুল লতিফ (৫৫) নামের তিনজনের অবস্থা গুরুতর।
আহত যাত্রী রাহাত হোসেন ছোটন, শান্তি খুজুর, লোকমান হাকিম ও তার স্ত্রী রওশন আরা অভিযোগ করে বলেন, ট্রেনটি স্টেশনে তিন মিনিট দাঁড়ানোর কথা থাকলেও সেখানে এক মিনিটও না দাঁড়িয়ে ছেড়ে দেয়ায় যাত্রীরা ট্রেন থেকে তাড়াহুড়া করে নামতে গিয়ে আন্তত ২০জন যাত্রী দুর্ঘটনার শিকার হয়ে প্রাণে বেঁচে গেছেন।
এর জন্য পুরোপুরি স্টেশন মাস্টার ও পয়েন্টসম্যানসহ ট্রেনের গার্ড ও চালক দায়ি। একই কারণে ট্রেন থেকে নামতে না পেরে ট্রেনেই চলে গেছেন পার্শ্ববর্তী পার্বতীপুরে শতাধিক যাত্রী।
ট্রেন থেকে নামতে গিয়ে আহত এবং নামতে না পারার জন্য দুঃখ প্রকাশ করে কর্তব্যরত স্টেশন মাস্টার ইসমাইল হোসেন বলেন, ট্রেনটি স্টেশনে তিন মিনিট দাঁড়ানোর কথা। কিন্তু পয়েন্টসম্যান জালাল উদ্দিন তার সাথে কোন পরামর্শ না করেই লাইন ক্লিয়ার দেয়ায় ট্রেনটি দাঁড়ানোর পরপরই স্টেশন থেকে ছেড়ে যায়। তিনি দাবি করেন, যা কিছু ঘটেছে পয়েন্টসম্যানের দায়িত্বহীনতার কারণেই ঘটেছে।

সমাজসেবক মজিবর রহমান এর ইন্তেকাল:
ফুলবাড়ী পৌর এলাকার পূর্বগৌরীপাড়া গ্রামের মৃত-মফাউদ্দিন এর ছেলে বিষিষ্ট সমাজ সেবক ও পূর্বগৌরীপাড়া জামে মসজিদএর সাবেক সভাপতি মজিবুর রহমান গতকাল বুধবার সকাল ১০টায় তার নিজ বাসভবনে ইন্তেকাল করেছেন (ইন্না…….রাজেউন)। মৃত কালে তার বয়স হয়েছিল ৮৬ বছর। মৃতকালে তিনি স্ত্রী ৪ পুত্র ও ১ কন্যাসহ অসংখ্যাক গুনাগুহ্রী রেখে গেছেন। ঐ দিন বিকেলে তার নামাজের জানাজা পূর্বগৌরীপাড়া পারিবারিক কবরস্থানে অনুষ্ঠিত হয়।
এদিকে সমাজসেবক মজিবর রহমানের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করে শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন স্থানীয় সাংসদ প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রী এ্যাড. মোস্তাফিজুর রহমান ফিজার, ফুলবাড়ী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ খুরশিদ আলম মতি, পৌর মেয়র মুরতুজা সরকার মানিক, ফুলবাড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হায়দার আলী শাহ, সাধারণ সম্পাদক মুশফিকুর রহমান বাবুল, বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক মোস্তাক হোসেন চৌধুরী খোকন, পৌর বিএনপির সভাপতি আব্দুল মান্নান সরকার, থানা ব্যবসায়ী সমিতির সভপতি নওশাদ আলম মুন্না, ফুলবাড়ী প্রেসক্লাবের সভাপতি প্রভাষক অমর চাঁদ গুপ্ত অপু, ফ্রেন্ডস্ গ্রুপ (একটি সামাজিক উন্নয়ন মূলক সংগঠন) এর প্রতিষ্ঠাতা ইঞ্জিনিয়ার মোস্তাফিজুর রহমান সুমন সহ বিভিন্ন রাজনৈতিক ও পেশাজীবি সংগঠনের নেত্রীবৃন্দ গভীর শোক ও সমবেদনা প্রকাশ করেছেন।

তিন দিনের সড়ক দুর্ঘটনায় আহত ১৫:
দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে তিন দিনের সড়ক দুর্ঘটনায় অন্তত ১৫জন আহত হয়েছেন। এদের মধ্যে ২ জনকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এবং অন্যদের স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দিতে হয়েছে। প্রত্যক্ষদর্শীরা বলছেন, প্রতিটি দুর্ঘটনাই ঘটেছে অতিরিক্ত আরোহী নিয়ে বেপরোয়া মোটসাইকেল চালানোর কারণে। আহতরা প্রত্যেকেই তরুণ-তরুণী।
জানা যায়, ঈদের দিন বিকেল থেকে ফুলবাড়ীর পার্শ্ববর্তী বিনোদন কেন্দ্র স্বপ্নপূরীতে ব্যাপক ভিড় জমে তরুণ-তরুণীদের। যা বুধবার পর্যন্ত অব্যাহত ছিল। স্বপ্নপূরীতে বিনোদন করতে আসা এসব তরুণ-তরুণীদের বাহন হিসেবে ছিল মোটরসাইকেল। প্রত্যেকটি মোটরসাইকেলে তিন থেকে চারজন আরোহী নিয়ে মাত্রাতিরিক্ত গতিতে ছুঁটতে গিয়ে ঐসব দুর্ঘটনার শিকার হয়েছে তরুণ-তরুণীরা। প্রত্যক্ষদর্শীদের ভাষ্য মতে, গতকাল বুধবার সকালে রংপুর থেকে একটি মোটরসাইকেলে চারজন এবং অপরটিতে এক তরুণীসহ তিনজন আরোহী নিয়ে স্বপ্নপূরীতে আসার সময় মধ্যপাড়া-রংপুর সড়কের ঘিল্লাই নামক স্থানে ভটভটিকে অতিক্রম করতে গিয়ে মোটরসাইকেলের নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সড়কের পাশের খাদে পড়ে যায় দুই মোটরসাইকেল। এতে তরুণীসহ দুইজন গুরুতর আহত হলে তাদের রংপুর মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে নেয়া হয় এবং অন্যদের স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেয়া হয়।
এদিকে গত মঙ্গলবার ফুলবাড়ী-স্বপ্নপূরী সড়কের বউ পড়া নামক স্থানে গতি রোধের সাথে ধাক্কা খেয়ে দুই তরুণীসহ মোটরসাইকেল আরোহী আহত হন। এদেরকে স্থানীয় স্বাস্থ্য কেন্দ্রে চিকিৎসা দেয়া হয়। একইভাবে গত সোমবার বিকেলে একই সড়কের কালীরহাট নামক স্থানে রিকশাভ্যানকে অতিক্রম করতে গিয়ে দুইটি মোটরসাইকেল দুর্ঘটনার শিকার হয়। এতে পাঁচজন আহত হয়। এদের মধ্যে তিনজনকে স্থানীয় স্বাস্থ্য কেন্দ্রে চিকিৎসা দেয়া হয়।






মন্তব্য চালু নেই