মেইন ম্যেনু

প্রেমিকার বাড়ি এসে ধর্ষণ মামলার আসামি হলো কিশোর প্রেমিক

মানিকগঞ্জের দৌলতপুরে বিয়ের দাবিতে প্রেমিকার বাড়ি এসে ধর্ষণ মামলার আসামি হলো কিশোর প্রেমিক রাকিবুল হাসান।

সোমবার দুপুরে রাকিবুলকে ওই মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে পুলিশ আদালতে পাঠায়। গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় রাকিবুল বিয়ের দাবিতে উপজেলার বাইতারা গ্রামে প্রেমিকার বাড়ি গিয়ে ওঠে। রাকিবুল একই গ্রামের আবদুল হাকিমের ছেলে এবং কলিয়া পাবলিক উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর শিক্ষার্থী।

স্থানীয়রা জানান, চার বছর ধরে ওই মেয়েটির সঙ্গে রাকিবুলের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। দু’জন একে অপরকে বিয়ে করতে অনড়। তবে বিষয়টি জানাজানি হলে উভয় পরিবারের লোকজন তাদের বিয়েতে রাজি হয়নি। গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় রাকিবুল বিয়ের দাবিতে প্রেমিকার বাড়ি গিয়ে ওঠে। মেয়ের পরিবার বিষয়টি রাকিবুলের অভিভাবকদের জানালেও তারা সেখানে না আসায় পুলিশে খবর দেওয়া হয়। শনিবার বিকেলে পুলিশ প্রেমিকার বাড়ি গিয়ে রাকিবুলকে থানায় নিয়ে আসে। একই সঙ্গে মেয়েটিকেও থানায় আনা হয়।

দু’জনই অপ্রাপ্ত হওয়ায় বিষয়টি সুরাহার জন্য উভয় পরিবারের লোকজনকে থানায় ডাকা হয়। মেয়ে পক্ষ এলেও ছেলে পক্ষের লোকজন আসেনি।

দৌলতপুর থানার ওসি এসএম শামসুদ্দিন জানান, রাকিবুলের বিরুদ্ধে মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগে তার মা থানায় মামলা করেছেন। ওই মামলায় রাকিবুলকে আদালতে পাঠানো হয়েছে। আর মেয়েকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য মানিকগঞ্জ সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই