মেইন ম্যেনু

প্রশ্ন ফাঁসের দায় নিলেন গণশিক্ষামন্ত্রী

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান বলেছেন, ‘যেহেতু আমিই দায়িত্বে আছি, তাই প্রশ্ন ফাঁসের দায় আমাকেই নিতে হবে। তবে জেলা প্রশাসকদের কাছ থেকে এখনো প্রশ্নপত্র ফাঁস হয়েছে এমন কোনো খবর আসেনি।’

মঙ্গলবার সচিবালয়ে পিএসসি পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁস সংক্রান্ত এক প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, ‘আপনাদের ( সাংবাদিক) কাছ থেকে এবং বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় খবর এসেছে যে, ফাঁস হওয়া প্রশ্নের কোনো কোনো জায়গায় ৬০ থেকে ৭০ ভাগ প্রশ্নের মিল আছে।’

প্রাথমিকের মন্ত্রী বলেন, ‘ফেসবুকেও এ ধরনের প্রশ্নপত্র ফাঁস করে দেয়া হচ্ছে। এখানে বলা হয়েছে, ‘আমরা ফাঁস করেছি এবং আরো করবো। এটা তারা কোন উদ্দেশে করেছে তা জানি না।’

ফাঁসকৃত প্রশ্নপত্রের শতভাগ মিল আছে এমন প্রশ্ন আমাদের কাছে, সে ক্ষেত্রে আপনি কী ব্যবস্থা নেবেন- এমন প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, ‘আমরা হুট করে পরীক্ষা বাতিলের সিদ্ধান্ত নিতে পারি না। এর আগে খোঁজ নিতে হবে কোন অঞ্চলে এর কতোটা প্রভাব পড়েছে। কতেটা ফাঁস হয়েছে। এরপর উপযুক্ত কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে রিপোর্ট পাওয়ার পর ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

প্রশ্ন ফাঁসের ক্ষেত্রে কর্তৃপক্ষের কোনো দুর্বলতা আছে কি না এমন প্রশ্নে মন্ত্রী বলেন, ‘নিশ্চয়ই আছে।তা না হলে ফাঁস হলো কীভাবে? আজ মন্ত্রণালয়ের বৈঠক আছে। বৈঠকে প্রশ্ন ফাঁসের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।’

প্রশ্ন ফাঁসের দায় নেবে কে এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘যেহেতু আমিই দায়িত্বে আছি, তাই প্রশ্ন ফাঁসের দায় আমাকেই নিতে হবে। ভালোরও দায়ও আমাকে নিতে হবে, মন্দটারও আমাকে দায় নিতে হবে।’



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই