মেইন ম্যেনু

পৃথিবীর সুন্দরতম কিছু ভয়ংকর দৃশ্য

নাটকীয় উদগিরণ: স্থানীয় টেলিভিশন চ্যানেলগুলোর ফুটেজে দেখা গেছে বুধবার চিলির কালবুকো আগ্নেয়গিরি থেকে উত্তপ্ত ও গলে যাওয়া পাথর, গ্যাস, ধোঁয়া এবং ছাই বের হচ্ছে৷ প্রায় চার দশক ধরে এটি সুপ্ত ছিল৷ আগ্নেয়গিরির সংখ্যার ভিত্তিতে বিশ্বে চিলির অবস্থান দ্বিতীয়, আর এই আগ্নেয়গিরিটি সবচেয়ে ভয়ংকর৷ ৫০ কিলোমিটার দূরের এলাকা থেকেও উদগিরণ দেখা যাচ্ছে৷

0,,18402204_303,00

সর্বোচ্চ সতর্কতা
চিলির রাজধানী সান্তিয়াগোর ১০০০ কিলোমিটার দক্ষিণে আগ্নেয়গিরিটির অবস্থান, যার উচ্চতা ৬৫৭১ ফুট৷ দেশটির জাতীয় খনি ও ভূতত্ব বিভাগ সর্বোচ্চ সতর্কতা জারি করেছে৷ ঐ এলাকায় জনগণের প্রবেশ নিষেধ করেছে৷

0,,18402404_303,00

 

আতঙ্ক
বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, আগ্নেয়গিরির ভেতর যেসব পদার্থ রয়েছে তাদের স্থিতি শক্তি গতি শক্তিতে রূপান্তরের কারণে এই অগ্ন্যুৎপাত ঘটেছে৷ দ্বিতীয়বার অগ্ন্যুৎপাতের পর মানুষের মধ্রে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে৷ খাবার ও গ্যাস মজুদ রাখা শুরু করেন সবাই৷

0,,18407639_303,00

বরফ গলার আশঙ্কা
অগ্ন্যুৎপাতের ফলে পর্বতের বরফ গলে নদীর পানি বাড়তে পারে৷ এর ফলে বন্যার সৃষ্টি হতে পারেও বলে হুশিয়ারি দিয়েছে কর্তৃপক্ষ৷

0,,18407641_303,00

ধূসর মরুভূমি
আগ্নেয়গিরির অগ্ন্যুৎপাতের ফলে বিশাল এলাকা জুড়ে ছড়িয়ে পড়েছে ছাই৷ এই ছাই পরিষ্কার করতে কাজ করছে সেনাবাহিনী৷ তবে কর্তৃপক্ষ হুশিয়ার করে দিয়ে বলেছে যে, বৃষ্টিপাতের আশঙ্কা রয়েছে এবং বৃষ্টিপাত হলে ছাইভস্ম কঠিন শীলায় পরিণত হবে৷ সেই ছাইয়ের কারণে যাতে শ্বাস নিতে কষ্ট না হয়, তাই সবাইকে মাস্ক বা রুমাল ব্যবহার করার পরামর্শ দিয়েছে কর্তৃপক্ষ৷

0,,18402397_303,00

পর্যবেক্ষণ আর অপেক্ষা
আগ্নেয়গিরিটির ২০ কিলোমিটার এলাকার মধ্যে সব অধিবাসীকে সরিয়ে নিয়েছে চিলির জাতীয় দুর্যোগপূর্ণ সংস্থা৷ সরিয়ে নেয়া হয়েছে ৬০০০-এরও বেশি মানুষকে৷






মন্তব্য চালু নেই