মেইন ম্যেনু

পুরুষের খেলা দেখায় জেলে ইরানের যুবতী

নিজে পুরুষদের ভলিবল ম্যাচ দেখেছেন, তাঁর মতোই অন্য মহিলারাও যাতে পুরুষদের খেলা দেখার অধিকার পান, সেজন্য মুখ খুলেছেন। তিনি স্রেফ এজন্য গ্রেপ্তার করে তেহরানের কুখ্যাত এভিন জেলে পুরে দেওয়া হয়েছে ঘঞ্চেহ গাভামি নামে ব্রিটিশ-ইরানি এক মহিলাকে! তাঁর হয়ে সোস্যাল  মিডিয়ায় জনমত, সমর্থন সংগ্রহে একটি পিটিশন পোস্ট করেছে অ্যামেনেস্ট ইন্টারন্যাশনালের ব্রিটেন শাখা। তাঁর মুক্তির সমর্থন সই সংগ্রহ চলছে পিটিশন সামনে রেখে।

ওই পিটিশনে অভিযোগ করা  হয়েছে, কোনও যুক্তিগ্রাহ্য, বৈধ অভিযোগ ছাড়াই তাঁকে জেলের নির্জন কুঠুরিতে ফেলে রাখা হয়েছে। তাঁর হয়ে মামলা লড়তে কোনও আইনজীবীর  সঙ্গেও কথা বলতে দেওয়া হচ্ছে না ঘঞ্চেহকে।প্রতিবাদে অনশন শুরু  করেছেন তিনি।যদিও দি টেলিগ্রাফ পত্রিকার এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, লন্ডন স্কুল অব ওরিয়েন্টাল অ্যান্ড আফ্রিকান স্টাডিজ-এর ২৫ বছর বয়সি এই আইনের স্নাতকের বিচারের দিন স্থির হয়েছে বলে জানিয়েছেন তাঁর এক আইনজীবী।

আন্তর্জাতিক মানবাধিকার গোষ্ঠীটির পিটিশন থেকে জানা গিয়েছে, ইরান-ইতালি পুরুষদের ভলিবল ম্যাচ দেখতে তেহরানের আজাদি স্টেডিয়ামে ঢুকেছিলেন ঘঞ্চেহ। ইরানে ইসলামের কড়া অনুশাসন বহাল রয়েছে। সেখানকার বিধি অনুসারে মহিলারা খেলার মাঠে পুরুষদের সঙ্গে থাকতে পারেন না, তা নিষিদ্ধ।

বিধি ভেঙে সমাজপতিদের রোষে পড়ে ইতিমধ্যেই ১০৩ দিন জেলে কাটানো হয়ে গিয়েছে। কবে মুক্তির আলো দেখবেন তিনি?






মন্তব্য চালু নেই